বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

২০১৮ সালের মধ্যে ১০ লাখ পর্যটক আকৃষ্ট করার পরিকল্পনা

প্রকাশের সময়: ১২:৫৬ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | ডিসেম্বর ১, ২০১৬

25

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে গতকাল শুক্রবার বিকেলে চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা ‘নভোএয়ার-ঢাকা ট্রাভেল মার্ট-২০১৬’ এর উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। ছবি : সংগৃহীত

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ১০ লাখ পর্যটককে ২০১৮ সালের মধ্যে আকৃষ্ট করার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

রাজধানীর হোটেল সোনারগাঁওয়ে গতকাল শুক্রবার বিকেলে চার দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা ‘নভোএয়ার-ঢাকা ট্রাভেল মার্ট-২০১৬’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন মন্ত্রী।

পর্যটনবিষয়ক পাক্ষিক ‘দি মনিটর’ এ মেলার আয়েজন করেছে। মেলার টাইটেল স্পন্সর বেসামরিক বিমান সংস্থা নভোএয়ার। মেলা আয়োজনে পার্টনার বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী ২০১৬ সালকে পর্যটন বছর ঘোষণা করেছেন। কিন্তু পর্যাপ্ত বাজেটের অভাবে প্রচার যথাযথভাবে চালানো যাচ্ছে না। প্রচার চালাতে টাকা দরকার। আমরা বাজেট পেতে যোগাযোগ করছি। ২০১৮ সালের মধ্যে দেশে ১০ লাখ পর্যটককে আকৃষ্ট করার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছি।’

উদ্বোধনের পরই দর্শনার্থীদের জন্য মেলায় প্রবেশ উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। মেলা শুরুর পরই দেশি-বিদেশি বিভিন্ন স্টলে বিভিন্ন বয়সের দর্শকদের ব্যাপক উপস্থিতি দেখা গেছে।

মেলায় অংশ নিয়েছে জাতীয় পর্যটন সংস্থা, বিমান সংস্থা, ট্রাভেল ও ট্যুর অপারেটর, হোটেল ও রিসোর্ট এবং পর্যটন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানগুলো। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে দর্শনার্থীরা দেশ ও দেশের বাইরের পর্যটন স্পটের তথ্য, যাতায়াত ও ভিসা প্রক্রিয়ার বিষয়ে তথ্য জানতে পারছেন।

মেলায় বাংলাদেশসহ বিভিন্ন দেশের ৫০টির অধিক সংস্থা অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে জাতীয় পর্যটন সংস্থা, বিভিন্ন বিমান সংস্থা, ট্রাভেল ও ট্যুর অপারেটর প্রতিষ্ঠান, হোটেল ও রিসোর্ট, পর্যটন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

অংশগ্রহণকারী সংস্থাগুলো দর্শনার্থীদের জন্য কম মূল্যে বিমান টিকেট, আকর্ষণীয় ট্যুর প্যাকেজসহ বিভিন্ন সেবা উপস্থাপন করছে।

ট্যুরিজম মালয়েশিয়া ও ট্যুরিজম অথোরিটি অব থাইল্যান্ড বিটুবি মিটিংসহ বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। ট্যুরিজম মালয়েশিয়ার উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদলসহ একটি সাংস্কৃতিক দলও এ মেলায় অংশ নিচ্ছে।

শুক্রবার বিকেল ৪টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা চলে। আজ শনিবার সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ মেলা চলবে।

মেলায় প্রবেশমূল্য ধরা হয় জনপ্রতি ২৫ টাকা। প্রবেশ কুপনের ওপর মেলার শেষদিন (১১ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় গ্র্যান্ড র‍্যাফেল ড্রর ব্যবস্থাও থাকবে। র‍্যাফেল ড্র বিজয়ীদের জন্য রয়েছে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন গন্তব্যে এয়ার টিকেট, ট্যুর প্যাকেজ, তারকা হোটেলে রাত্রিযাপন, লাঞ্চ ও ডিনার কুপণসহ বিভিন্ন পুরস্কার।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে