সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

হবিগঞ্জে গর্ভবতী স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য চুরি

প্রকাশের সময়: ৫:১৭ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | ডিসেম্বর ২৩, ২০১৬

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:
হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জে  গর্ভবতী স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য চুরি করে শেষ রক্ষা হল না আল আমিন নামের এক দরিদ্র স্বামী। অবশেষে ছোট ভাইসহ ধরা পড়তে হল গোয়েন্দা পুলিশের হাতে ।
আটককৃত আল আমীন (২৪)ও ফয়সল মিয়া (২১) হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার শিবপাশা গ্রামের খালেক বাবুর্চির পুত্র।
শুক্রবার দুপুরে হবিগঞ্জ পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সভাকক্ষে এক প্রেস বিপিংয়ে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান, হবিগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সাকেল) সুদীপ্ত রায়।
প্রেস বিপিংয়ে তিনি জানান,  শুক্রবার ভোর রাতে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানার শাহীভাগ এলাকা থেকে আল আমীন ও ফয়সল মিয়াকে  আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩৩টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়।
সহকারী পুলিশ সুপার আরও জানান, গত ১৩ ডিসেম্বর জেলার শায়েস্তাগঞ্জ স্টেশন এলাকায় দিরাই মার্কেটের মহসিন মিয়ার দোকানে এক দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়। এ সময় দোকান থেকে ৪৫টি মোবাইল ফোনসহ প্রায় ৬ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত ১৫ ডিসেম্বর দোকান মালিক মহসিন মিয়া শায়েস্তাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের ১ সপ্তাহেও পুলিশ চুরির মামলামাল উদ্ধার ও চোরদের ধরতে না পারায়  পুলিশ সুপার জয়দেব কুমার ভদ ২২ ডিসেম্বর মামলাটি গোয়েন্দা পুলিশ পেরণ করেন। মামলার তদন্তভার দেওয়া হয় এস আই আব্দুল করিম। এরপর গোয়েন্দা পুলিশ তাদের ধরতে অভিযান চালিয়ে মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানার শাহীভাগ এলাকা থেকে তাদের আটক করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩৩টি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে। বাকি মোবাইল ফোনগুলো বিক্রি করে দিয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।
এ ব্যাপারে আটক আল আমীন জানায়, সে একজন দিনমজুর। তার স্ত্রী গর্ভবতী, চিকিৎসার জন্য  প্রচুর টাকার প্রয়োজন। সে টাকা জোগাড় করতেই সে চুরি করে। আর তার এই চুরির কাজে সহযোগিতা করে ছোট ভাই।

ফয়সল চৌধুরী
হবিগঞ্জ  প্রতিনিধি

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে