শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

রংপুর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ট্রেন চলাচল বন্ধ

প্রকাশের সময়: ৪:১৪ অপরাহ্ণ - শনিবার | ডিসেম্বর ৩১, ২০১৬

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

পশ্চিমাঞ্চলীয় রেলওয়ের কর্মকর্তাকে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে  রংপুর থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে কর্মবিরতি পালন করছেন কর্মকর্তা কর্মচারীরা।

শনিবার দুপুরে রেলের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সভা চলাকালীন সময়ে এই লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটে। মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডলের বিরুদ্ধে রেল কর্মকর্তাকে লাঞ্ছনার এই অভিযোগ আনা হয়।

এদিকে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন শতশত যাত্রী।

প্রত্যক্ষদর্শী, পুলিশ ও রেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, বেলা ১১ টার দিকে পশ্চিমাঞ্চলীয় রেলের চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার মেহের কুমার গুহ রংপুর রেল স্টেশনের সুপারের কক্ষে বৈঠক করছিলেন। এ সময় আওয়ামী লীগ নেতা তুষার কান্তি মন্ডল লোকজন নিয়ে রেলের কর্মকর্তাদের রংপুর থেকে আরো একটি আন্তঃনগর ট্রেন ও রংপুর এক্সপ্রেসের ভালো বগি দেওয়ার দাবি জানান।

এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। পরে একপর্যায়ে তা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। ঘটনাটি জানাজানির পর স্টেশনের কর্মকর্তা কর্মচারীরা বেল চলাচল বন্ধ করে দিলে পার্শ্ববর্তী স্টেশনগুলোতে বেশকটি ট্রেন আটকা পড়ে।

রংপুর রেল স্টেশনের সুপার আব্দুল জব্বার অভিযোগ করে বলেন, পশ্চিমাঞ্চলীয় রেলের চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজারসহ আমরা রেলের উন্নয়ন বিষয়ে সভা করছিলাম। এ সময় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল ১০/ ১২ জন লোক নিয়ে এসে বেশকিছু দাবি তুলে ধরেন। তারা এক পর্যায়ে রেলমন্ত্রীর মোবাইল নম্বর চায়। এ নিয়ে কথা কাটাকাটি হলে এক পর্যায়ে তুষার কান্তি ও তার লোকজন চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজারসহ ৪ /৫ কর্মকর্তাকে মারধর করে।

তিনি আরো বলেন, এ ঘটনায় কর্মকর্তা কর্মচারীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে রংপুর থেকে রেল চলাচল বন্ধ করে দেয়। পরে তারা অপরাধীদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবিতে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতি শুরু করেন।

আজ দুপুর ২ টা পর্যন্ত লালমনিরহাট থেকে পার্বতীপুর, পার্বতীপুর থেকে বুড়িমারী পর্যন্ত কমিউটার ট্রেনসহ বেশকটি ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

এদিকে অভিযোগের ব্যাপারে মহানগর আওয়ামী লীগের  সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল বলেন, আমারা রংপুর থেকে আরো একটি আন্তঃনগর ট্রেন ও রংপুর এক্সপ্রেসে ভালো বগি সংযোজনের দাবি করেছিলাম। কিন্তু উক্ত কর্মকর্তা আমাদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন।

তিনি মারপিটের কথাটি অস্বীকার করে বলেন, কাউকে মারপিট করা হয়নি। সেখানে শুধু কথা কাটাকাটি হয়েছিল।

রংপুর রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই লুৎফর রহমান মারপিটের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় রেল কর্তৃপক্ষ মামলা দায়ের প্রস্তুতি নিয়েছে। কর্মকর্তা কর্মচারীদের কর্মবিরতির ফলে আপাতত রংপুরের ওপর দিয়ে কোনো ট্রেন চলাচল করছেনা।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে