বুধবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

নেতার ভোজে শত মণ গরু, ১০ মণ খাসি, ৮০ মণ মাছ !

প্রকাশের সময়: ৭:৩৮ অপরাহ্ণ - বুধবার | ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

 জয়পুরহাট: ২২টি গরুর প্রায় ১০০ মণ মাংস। খাসির মাংস ছিল ১০ মণ। ৮০ মণ মাছ। ১০০ মণ চাল। ১০০ মণ আলু। ২০ মণ ডাল। দই-মিষ্টি ছিল ১০০ মণ। ছিল প্রচুর পরিমাণ পান-সুপারি, হরেক রকম পিঠা।

এই দিয়ে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরের খাবার সারলেন জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার রুকিন্দিপুর ইউনিয়নের প্রায় ৩০ হাজার বাসিন্দা। ‘বাঙালির শীতকালীন উৎসব ও প্রীতিভোজ’ ব্যানারে এই ভূরিভোজের আয়োজন করেন উপজেলা কৃষক লীগের আহ্বায়ক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মো. জিয়াউল হক জিয়া।

রুকিন্দিপুর ইউনিয়নের রোয়ার গ্রামে উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত আলাউদ্দিন সরদারের বাড়ির পাশে প্রায় ৩০ একর জমির ওপর এ ভোজের আয়োজন করা হয়। এতে প্রায় ৫০ লাখ টাকা ব্যয় হয় বলে আয়োজক সূত্রে জানা গেছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, পুরো এলাকাজুড়ে বিশাল প্যান্ডেল নির্মাণ করা হয়েছে। অতিথিদের খাওয়াতে বসার জন্য ছিল ১০ হাজার চেয়ার ও ৫০ হাজার গজ কাপড়ের মাদুর। রান্নার জন্য শতাধিক রাঁধুনিসহ খাবার পরিবেশনের জন্য ছিল আড়াই হাজার কর্মী।

স্থানীয়রা জানান, প্রীতিভোজ উপলক্ষে ১০ হাজার লোককে দাওয়াত দিলেও এই অনুষ্ঠানে খান ৩০ হাজার। বাকিরা আমন্ত্রণ ছাড়াই অনুষ্ঠানে খেতে যান। আমন্ত্রণপত্রে গতকাল দুপুর ২টায় এ প্রীতিভোজের সময় উল্লেখ করা হলেও সেখানে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত একাধিক পর্বে লোকজন এই ভোজে অংশ নেন। এ ছাড়া অনুষ্ঠানের ঘোষণা মঞ্চের কাছে কয়েকটি স্থানে শীতকালীন বিভিন্ন পিঠা প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করা হয়।

অনুষ্ঠানকে ঘিরে কয়েক দিন ধরেই পুরো এলাকার মানুষের মধ্যে চলছে  আলোচনা-সমালোচনা।

এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা বলেন, জিয়াউল হকের বড় ভাই মঞ্জুরুল হক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বড় কর্মকর্তা। তাঁর অনেক টাকা। কিছু দিনের মধ্যে তিনি অবসরে যাবেন। এরপর জয়পুরহাট-২ আসনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হবেন। তাই এলাকাবাসীকে খাওয়ালেন।

এই প্রীতিভোজ সম্পর্কে উপজেলা কৃষক লীগের আহ্বায়ক মো. জিয়াউল হক জিয়া বলেন, ‘গত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে রুকিন্দিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। ওই সময় এলাকাবাসীকে এক বেলা পেটপুরে খাওয়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। কিন্তু আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও জয়পুরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপনের পরামর্শে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াই।’

জিয়াউল আরো বলেন, ‘এলাকাবাসীকে খাওয়ানোর প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে মানুষকে একবেলা খাওয়ানোর ব্যবস্থা করি। এ অনুষ্ঠানে বাঙালি জাতির ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে শীতকালের পিঠাপুলিও রাখা হয়।’

আক্কেলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম বলেন, বিশাল এ অনুষ্ঠানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় ৫০ জন পোশাকধারী ছাড়াও সাদা পোশাকে পুলিশ ছিলেন ২০ জন। অনুষ্ঠানে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরাও মোতায়েন ছিলেন।

উপরে