মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর, ২০১৮ | ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

জলঢাকায় ইউপি সদস্যকে গণধোলাই, ৩জনের জরিমানা

প্রকাশের সময়: ৯:০৮ পূর্বাহ্ণ - বুধবার | ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

নীলফামারীঃনীলফামারীর জলঢাকা উপজেলা পরিষদ এলাকায় বালাগ্রাম ইউনিয়নের ৬-নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী গণ ধোলাইয়ের শিকার হয়েছে। মঙ্গলবার(৭ই ফেব্রুয়ারি) বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

এ ঘটনায় ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী, সংরক্ষিত নারী সদস্য মনুফা বেগম ও তার স্বামী শরিফুল ইসলাম কান্দুকে একশত করে টাকা জরিমানা করেন।
অভিযোগে জানা যায়, ২০১৬/২০১৭ অর্থ বছরের অতি দরিদ্রদের জন্য ৪০দিনের কর্মসূচি (ইজিপিপি)চুড়ান্ত তালিকায় নাম প্রনয়নে অনিয়মের একটি অভিযোগ করা হয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে। মঙ্গলবার বিকালে বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বৈঠক বসেন। সেখানে উপস্থিত ছিলেন উক্ত ইউপি’র চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যগন।
এক পর্যায়ে ইউপি সদস্যগণ নির্বাহী কর্মকর্তার কক্ষ ত্যাগ করে উপজেলা পরিষদ চত্তরে অবস্থান নেন।
অভিযোগ মতে ইউপি চেয়ারম্যান পক্ষ নিয়ে ৬ নং ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী অন্যান্য ইউপি সদস্যদের উস্কানীমুলক কথা বলতে থাতে।
এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তার উপর চড়াও হয়ে গনধোলাই দেয় অন্যান্যরা। এ সময় জনতার রোষানলে পড়েন ইউপি চেয়ারম্যান ও।
পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজেই ছুটে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনে অভিযুক্ত তিনজনকে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে জরিমানা করেন।
এবিষয়ে বালাগ্রাম ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড সদস্য মিজানুর রহমান মিলন সাংবাদিকদের জানান,চল্লিশ দিনের কর্মসূচীতে এক তরফা ভাবে চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী তাদের পছন্দ মতো শ্রমিক নাম অন্তর্ভুক্ত করেনন।তাতে আমরা সবাই এর প্রতিবাদ জানাই এবং নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ করি।
৭,৮,৯ সংরতি ওয়ার্ড সদস্য মনুফা বেগম জানান,আমরা লিখিত অভিযোগ করলে ইউপি সদস্য গোলাম রব্বানী আমাদেরকে প্রকাশ্যে দালাল-চামচা বলে গালি গালাজ করে।
এবিষয়ে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিপন বলেন, আমাদের(ইউপি সদস্যদের) মাঝে ভুল বুঝাবুঝি হলে ইউএনও স্যারের হস্তক্ষেপে বিষয়টি আপোষ-মীমাংসা হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা -রাশেদুল হক প্রধান বলেন, অভিযোগের বিষয়টি আমলে নিয়ে চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে সমাধা করি। মারামারির বিষয়টি দু:খ জনক। ঘটনার সাথে জড়িত তিন জনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে  ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে।

মহিনুল সুজন

নীলফামারী প্রতিনিধি

উপরে