বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

মন মানসিকতার পরিবর্তন ঘটাতেই সাংস্কৃতিক চর্চা করতে হবে: আসাদুজ্জামান নূর

প্রকাশের সময়: ২:৩৮ অপরাহ্ণ - বুধবার | মার্চ ৮, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, পত্নীতলা,নওগাঁ: সাংস্কৃতিক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এমপি বলেছেন, ছেলে মেয়েদের পরীক্ষায় শুধু পাশ করাই জীবন নয়। শিক্ষার সাথে সাংস্কৃতিক সমন্বয় করতে হবে। তাই সাংস্কৃতিক চর্চা করতে হবে। তা না হলে মন মানসিকতার পরিবর্তন ঘটানো সম্ভব নয়। জাতির পিতা এই বাংলাকে সোনার বাংলাদেশ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু, স্বাধীনতার শত্রু, বিপথ গামিরা তাকে হত্যা করেন। এ দেশে বিভিন্ন ধর্মের, জাতের, বর্ণের, রক্তের মানুষ বসবাস। এ দেশে ১০ বছর আগে কি ছিল ? তা আজ তাকালেই আমরা বুঝতে পারি। দেশ আজ জাতির জনকের সুযোগ্য কন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে। জাতির জনকের রেখে যাওয়া কৃতিকে ধরে রেখেই তাঁর কন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন।
সবার হাতে হাতে আজ মোবাইল ফোন ! তাই হাত তালি দিতে পারবেন না এক হাতে। এসবই আমাদের সরকারের অবদান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিরলস পরিশ্রম ও সুপরিকল্পিত চেষ্টায় তা সম্ভব হয়েছে। এ উন্নয়নকে ধরে রাখতে হবে। তাই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে। সবকিছু নির্ভর করছে চাহিদার উপর। যেখানে যেখানে চাহিদা রয়েছে সেখানে এরকম একাডেমি ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে। বাংলাদেশের অন্যান্য সংস্কৃতির পাশা-পাশি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক কর্মকা- বিকশিত হোক। এনিয়ে বাংলাদেশ সরকার কাজ করে যাচ্ছেন ।

৮মার্চ বুধবার বেলা সাড়ে ১০টায় নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলায় ‘ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক একাডেমি’ নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী পর আলোচনা সভার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংস্কৃতিক মন্ত্রী এসব কথা বলেন ।

তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে কক্সবাজার, খাগড়াছড়ি, রামো, মানিকগঞ্জ, দিনাজপুর, রাঙ্গামাটি ও বিরিশিরিসহ অন্যান্য জেলায় এরকম একাডেমী ভবন নির্মিত হচেছ। ফলে ক্রমাগত সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আরো কিছু চাহিদার প্রয়োজন আছে। বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলার গ্রামগঞ্জে সাংস্কৃতিক ক্রমাগত হয় সেই লক্ষ্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। ছোট ছোট প্রচেষ্টায় একদিন বাংলাদেশে চমৎকার সাংস্কৃতিক পরিবেশের জন্ম দিবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন জাতীয় সংসদের হুইপ ও ধামইরহাট-পত্নীতলা আসনের সাংসদ শহিদুজ্জামান সরকার (বাবলু)। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. আমিনুর রহমান, পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক, নওগাঁ পৌর আ’লীগের সভাপতি দেওয়ান ছেকার আহমেদ শিষাণ, পত্নীতলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: আব্দুল মালেক, উপজেলা সহাকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুল করিম, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শহিদুল ইসলাম, পত্নীতলা উপজেলা আওয়ামলীগের সভাপতি ইছাহাক হোসেন, উপজেলা আ.লীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধা বাবু নির্মল কুমার ঘোষ, নজিপুর পৌরসভার মেয়র রেজাউল কবির চৌধুরী, নওগাঁ গণপূর্ত নির্বাহী প্রকোশলী বাকী উল্লাহ,উপজেলা আ.লীগের সহসভাপতি আব্দুল খালেক চৌধুরী, উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল গাফফার, পত্নীতলা থানা ওসি আজিম উদ্দীন, থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জাহাঙ্গির আলম, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: রঞ্জন চৌধুরী, উপজেলা প্রকৌশলী তোফায়েল আহমেদ, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা: আব্দুল মজিদ, নজিপুর পৌর আ.লীগের সভাপতি শহিদুল আলম বেন্টু ও সাধারণ সম্পাদক মিল্টন উদ্দিন, উপজেলা আ.লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আ.লীগের অন্যতম সদস্য আবুল কালাম আজাদ (অরুণ), নজিপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক ইখতিয়ার উদ্দীন আজাদ, নজিপুর প্রেস ক্লাবের কোষাধ্যক্ষ টিপু সুলতান, নজিপুর প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক সিয়াম সাহারিয়া, উপজেলা আদিবাসী নেতা নরেন পাহান, জোতিন টপ্যসহ ক্ষুদ্রনৃগোষ্ঠীর অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
পরে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর তাদের কালচারাল তুলে ধরে নাচ পরিবেশন করা হয়। উল্লেখ্য, ৫ কোটি ৬০ লাখ ৭১ হাজার টাকা ব্যয়ে ‘পত্নীতলা ক্ষুদ্র নৃৃগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক একাডেমি’ নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে।

 

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে