বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৮ | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ঢাবি ও জাবির শিক্ষার্থীদের পাল্টাপাল্টি বাস ভাঙচুর

প্রকাশের সময়: ১২:৩৯ অপরাহ্ণ - সোমবার | মার্চ ১৩, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সম্প্রতি অধিভুক্ত হওয়া রাজধানীর সাত কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো ব্যবহার ও খেলাধুলাসহ বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারবে- এমন উড়ো খবরে পাল্টাপাল্টি বাস ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িয়ে পড়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ১১ মার্চ শনিবার সন্ধ্যা থেকে ঘটনার সূত্রাপাত।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীরা মনে করছেন, অধিভুক্ত কলেজগুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো ব্যবহার কিংবা খেলায় অংশগ্রহণ করতে পারে না। আর এর প্রতিবাদ জানানোর সময় টিএসসি মোড়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাড়া করা একটি বিআরটিসি বাস ভাঙচুর করেন শিক্ষার্থীরা।

এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার কিছুক্ষণ পরই ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষার্থীরা। পরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাসের পর অবরোধ তুলে নেন শিক্ষার্থীরা।

পরদিন ১২ মার্চ রোববার সকালে সাভার রুটে চলাচলকারী ক্যাম্পাস সংলগ্ন ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাড়া করা একটি বিআরটিসি বাস ভাঙচুর করেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। এ ঘটনার জেরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়েও উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। সেই সময় বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রশাসনের পক্ষ থেকে উত্তেজিত শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বাস থেকে নেমে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউতে দাঁড়িয়ে থাকা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের দুটি বাস ভাঙচুর করেন।

ঢাবির ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক এম আমজাদ আলী বলেন, ‘আমার মনে হচ্ছে, এসব ঘটনার পেছনে কারো কোনো উদ্দেশ্য আছে। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়েই এ কাজ করাচ্ছে। ঘটনা মিটমাট হয়ে যাওয়ার পরও এ ধরনের ঘটনার কথা চিন্তা করা যায় না।’

দুই বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে সম্পর্ক খারাপ করে কেউ অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির চেষ্টা করছে বলেও মনে করছেন ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর।

এর আগেও বাস নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বেশ কয়েকবার দ্বন্দ্বের ঘটনা ঘটেছে।

উপরে