বুধবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৮ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

‘বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তে বিস্ফোরক পোঁতা’

প্রকাশের সময়: ৩:২৭ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | এপ্রিল ৬, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি: বাংলাদেশ-মিয়ানমার শূন্য লাইনের আশপাশে আইইডি (ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস) ও মাইন পুঁতে রাখা হয়েছে। সেই কারণে বিস্ফোরণে সেখানে হতাহতের ঘটনা ঘটছে। তবে ওই সব জায়গায় বাংলাদেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এখনো পৌঁছাতে পারেনি।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদর দপ্তরে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আনিসুর রহমান সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। তবে কারা সেসব বিস্ফোরক পুঁতে রেখেছে তা তিনি স্পস্ট করেননি।

১ থেকে আজ ৬ এপ্রিল পর্যন্ত সাত দিনব্যাপী সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে বিজিবির সদর দপ্তরে বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যে বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে দুই দেশের সীমান্ত পরিস্থিতি ও অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের বিষয়ে বিভিন্ন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়। ওই সময় চিফ অব পুলিশ জেনারেল স্টাফ (মিয়ানমার পুলিশ ফোর্স) মেয়োসেও উইন উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আনিসুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের শূন্য লাইনের আশপাশে পুঁতে রাখা আইইডি ও মাইন অপসারণে দুই দেশ সম্মত হয়েছে। সীমান্তের কোনো বিশেষ এলাকায় এ ধরনের অপরাধীদের অবস্থান সম্পর্কে তথ্য পাওয়া গেলে সমন্বিত অভিযান পরিচালনা করা হবে। ‘ মিয়ানমার সীমান্তের ওপারে ৪৯টি ইয়াবা তৈরির কারখানা থাকার তথ্য বাংলাদেশ মিয়ানমারকে দিয়েছে বলেও জানান তিনি।

উপরে