রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

গোয়ালন্দ গার্ডার ছুটে গিয়ে ঝুঁকিতে রেলওয়ে ব্রীজ

প্রকাশের সময়: ৩:১৩ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার | এপ্রিল ২৫, ২০১৭


কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:
মো: মাহ্ফুজুর রহমান, রাজবাড়ী: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে রেল লাইনের পাশ থেকে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করার অপরাধে দুটি ড্রেজার মেশিন ও আনুসাঙ্গিক সকল উপকরণ জব্দ করা হয়েছে। গত সোমবার গোয়ালন্দ উপজেলার নির্বাহী অফিসার হাসান হাবিব ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ২টি ড্রেজার মেশিন জব্দ করে। গভীরভাবে বালু উত্তোলন করায় মাটি দেবে গিয়ে পাশের রেল ব্রীজের দুটি গার্ডার ছুটে গেছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এতে করে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে ব্রীজটি। তবে স্থানীয়রা বলছেন তিনদিনের ভারী বর্ষনে ব্রিজটির নিচ দিয়ে অস্বাভাবিক স্রোত যাওয়ায় এবং পাশেই গভীর করে রেলওয়ের ঠিকাদার মাটি কাটায় ব্রীজটি এভাবে ঝুঁকির মুখে পড়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গোয়ালন্দ বাজারের অদুরে শ্মশান ঘাট এলাকায় স্থাপিত রেল ব্রিজের ৪-৫শ ফুট দুর হতে ড্রেজার মালিক ইলিয়াস হোসেন ও রফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে অনেক জায়গা জুড়ে বালু উত্তোলন করছেন। জায়গাটির মালিক মোশারফ আহমেদ। তিনি নগদ টাকার প্রয়োজনে ড্রেজার মালিকদের কাছে বালু বিক্রি করেছেন। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে বালু উত্তোলন করায় ওই এলাকায় অন্তত ৩০-৪০ ফুট করে গভীর হয়ে গেছে। ফলে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে রেল ব্রীজসহ আশে-পাশের এলাকা। গত তিনদিনের ভারী বর্ষণে ব্রিজের পূর্ব পাশের বিশাল মাঠের পানি ব্রীজটির নীচ দিয়ে প্রবাহিত হয়। গত কয়েকদিন আগে ওই এলাকায় রেলের ঢাল দিয়ে রবাবর মাটি কেটে রেলের পাশে জায়গা সম্প্রসারণ করে রেলের ঠিকাদার। প্রবাহিত পানি ওই জায়গা দিয়ে সজোরে বেরুতে গিয়ে ব্রিজের নীচের পাটাতনের ইটগুলো উঠে যায়। এতে গার্ডার দুটি মূল ব্রিজ হতে ছুটে গিয়ে ৪-৫ ফুট করে দেবে গেছে। রেলওয়ে বিভাগ জরুরী ভিত্তিতে গার্ডারের পাশ দিয়ে ও ব্রিজটির নীচে বালুর বস্তা ফেলে পরিস্থিতি সামাল দেয়ার চেষ্টা করছে।
এ দিকে খবর পেয়ে, সোমবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসান হাবিব ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে ড্রেজার দুটির মেশিন, পাইপ, ড্রামসহ সকল আনুসাঙ্গিক জব্দ করেন। এ সময় রাজবাড়ী রেলওয়ের সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সুলতান আলী ও উর্ধ্বতন উপ সহকারী প্রকৌশলী আবু বক্কর সিদ্দিক উপস্থিত ছিলেন। অভিযানের ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাসান হাবিব বলেন, ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু বা মাটি উত্তোলন করা অবৈধ। তাছাড়া এ কারণে সেখানকার রেল ব্রিজটি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। তবে ভারী বর্ষণও ব্রিজটির ক্ষতির একটি কারণ বলে তিনি জানান।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে