রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ | ৪ঠা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ইবিতে স্বাস্থ্য বিকাশে পুষ্টির ভূমিকা শীর্ষক আন্তর্জাতিক কনফারেন্স

প্রকাশের সময়: ৬:৩২ অপরাহ্ণ - শনিবার | মে ৬, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকমডটবিডি:

ইমানুল সোহান-ইবি প্রতিনিধি
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে “রোল অফ নিউট্রিশন ইন হেল্থ এন্ড ডিভিলপমেন্ট” বিষয়ক আন্তর্জাতিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। হেকেপ‘র আর্থিক সহায়তায় শনিবার সকাল ১০টায় বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়। ফলিত পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগ এ কনফারেন্সের আয়োজন করে।

বিভাগীয় সভাপতি অধ্যাপক ড. মোঃ রেজাউল করিম এর সভাপতিত্বে ও  অধ্যাপক ড. শেখ মোঃ আব্দুর রউফ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভিসি অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন-উর- রশিদ আসকারী । বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান, ফলিত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. মোঃ শামসুল আলম। উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান করেন কনফারেন্সের আহ্বায়ক প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুস সামাদ।

কনফারেন্সে আলোচনা করেন জাপানের সুকুবা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মিটসুরি ওকুওয়াকি, চট্টগ্রাম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. নুরুল আবছার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমেস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. খালেদ হোসাইন।

কনফারেন্সে বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। অংশগ্রহনকারীদের একটি ব্যাগ ও সনদ প্রদান করা হয়।
প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, যথাযথ পুষ্টিজ্ঞান না থাকলে সুস্থ শরীর গঠন সম্ভব নয় এবং সুস্থ শরীর ব্যতিরেকে আমরা পরিপূর্ণ মানুষ হতে পারি না। তিনি বলেন, খাদ্যগ্রহণের ব্যাপারে আমাদের সঠিক পরিকল্পনা থাকা উচিত।
ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, খাদ্য ও পুষ্টি বিষয়ে আমাদের আরও সচেতন হতে হবে। বিশেষ করে শিশুদের দিকে এ ব্যাপারে আমাদের নজর দেয়া দরকার। কারণ আমাদের শিশুরা আমাদের ভবিষ্যৎ। পুষ্টি সচেতনতার অভাবে আমাদের শিশুরা যদি অপুষ্টিতে ভোগে সেটি আমাদের জন্য আত্মঘাতী হবে। তিনি বলেন, পুষ্টিকর খাবার খাওয়া মানে অত্যধিক খাবার গ্রহণ নয়। শারীরিক প্রয়োজন অনুসারে খাদ্য গ্রহণ করা উচিত।

উপরে