বুধবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

যশোর পুলিশের কর্মসূচিতে এখনও ধরা পড়েনি শীর্ষ ১৪ মাদক বিক্রেতা

প্রকাশের সময়: ৯:২১ অপরাহ্ণ - বুধবার | মে ২৪, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডিঃ

ইয়ানুর রহমান-যশোর: মাদক, সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে যশোর জেলা পুলিশের এক’শ দিনের কর্মসূচিতে ৯ হাজার ১৩৪ জন আটক হলেও শীর্ষ অনেক মাদক বিক্রেতা ও সন্ত্রাসীরা ধরা পড়েনি। পুলিশ তাদের ধরতে নতুন আরও এক’শ এক দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। এ কর্মসূচি চলার সময় যশোরের শীর্ষ ১৪ মাদক ব্যবসায়ীকে ধরিয়ে দিলে পুরস্কৃত করা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান। এজন্য সন্ধানদাতাকে ১০ হাজার টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পুরস্কার দেওয়া হবে। বুধবার বেলা ১২টার দিকে প্রেসক্লাব যশোর মিলনায়তনে প্রেস ব্রিফিংয়ে এসপি এ ঘোষণা দেন। এসময় তিনি গেল এক’শ দিনের কর্মসূচির চিত্র তুলে ধরেন এবং নতুন কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

জেলা পুলিশ ঘোষিত শীর্ষ ১৪ মাদক ব্যবসায়ী হলেন, শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া এলাকার মৃত ওলিয়ার রহমানের মেয়ে বেবি খাতুন, একই এলাকার মোহাম্মদ আলীর স্ত্রী রুমা বেগম, শংকরপুর এলাকার মৃত পিয়ারু কাজীর ছেলে তারেক কাজী, চৌগাছার বড় কাবিলপুর গ্রামের সোনাই মন্ডলের ছেলে শফি মেম্বর, অভয়নগর উপজেলার গুয়াখোলা গ্রামের আবদুল গণির ছেলে কামরুল ও বুইকারা গ্রামের মৃত হাশেম আলীর মেয়ে লিপি বেগম, বেনাপোল পোর্ট থানার ভবের বেড় গ্রাামের কলুপাড়া এলাকার মৃত হোসেন আলীর ছেলে রবিউল ইসলাম ও বারোপোতা গ্রামের মোনতাজ আলীর ছেলে রিয়াজুল ইসলাম, চৌগাছার ফুলসারা গ্রামের মৃত আবদুল হকের ছেলে আশরাফুল আলম, শার্শার কোটা পশ্চিমপাড়ার শের আলী দফাদারের ছেলে আনোয়ার হোসেন আনা, চৌগাছার বড়কাবিলপুর গ্রামের মৃত রিয়াজ উদ্দিন মন্ডলের ছেলে ইসরাইল হোসেন নুনু, শার্শার কাশিপুর-গোপীনাথপুর গ্রামের মৃত জয়নালের ছেলে আশাদুল ইসলাম আশা, বেনাপোল পোর্টথানার নারায়ণপুর গ্রামের মৃত কেরামত মল্লিকের ছেলে বাদশা মল্লিক ও রঘুনাথপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে জাহাঙ্গীর।

পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, শীর্ষ ১৪ মাদক ব্যবসায়ীর তালিকার প্রথম ৮জনকে ধরিয়ে দিলে প্রত্যেককে ২৫ হাজার ও বাকী ৬জনকে ধরিয়ে দিলে ১০ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। মাদক ও মাদক বিক্রেতারা দেশ ও জাতির শত্রু। এদের নির্মূলে দেশপ্রেমিক সব নাগরিককে এগিয়ে আসা উচিত।

পুলিশ সুপার বলেন, ত্রিশটি ইউনিয়নের মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ বিরোধী এক’শ দিনের কর্মসূচি সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে। অভিযানে ২৪ কোটি ৯৭ লাখ ৭৪ হাজার টাকার মাদকদ্রব্য, ৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকার চোরাচালান পণ্য, ৪৪টি দেশি-বিদেশি অস্ত্র, ৬২ রাউন্ড গুলি, ৭ ম্যাগজিন, ৬৮টি বোমা, ১০টি ছোর ও ৫ রামদা উদ্ধার করা হয়েছে। ৯ হাজার ১৩৪জনকে আটক করা হয়েছে।

প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহীদ মোহাম্মদ আবু সরোয়ার, প্রেসক্লাব যশোরের সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন, সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমান, ডিবি ওসি ইমাউল হক, কোতোয়ালি থানার ওসি একেএম আজমল হুদা প্রমুখ।#

উপরে