বুধবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

অবশেষে ধর্ষণ মামলার আসামি হলো সেই শিশু বর

প্রকাশের সময়: ৩:৫৭ অপরাহ্ণ - রবিবার | মে ২৮, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডিঃ বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে শিশুর সাথে ৯ মাসের অন্ত:সত্ত্বা তরুণীর বিয়ে ও ১ দিন পরে সন্তান প্রসবের ঘটনাটি শেষ পর্যন্ত মামলায় গড়িয়েছে। হাসিবের কথিত স্ত্রী সোনিয়া আক্তারের পিতা আসলাম মাল বাদি হয়ে রবিবার বেলা একটায় থানায় মামলাটি দায়ের করেন। এতে একমাত্র আসামি উমাজুড়ি গ্রামের আব্দুল হালিম মালের ছেলে গুলিশাখালী সিনিয়র মাদ্রাসার ৫ম শ্রেণির ছাত্র হাসিব মাল।

নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম বাচ্চু গত বৃহস্পতিবার রাতে কাজী ডেকে সোনিয়া ও হাসিবের বিয়ে পড়ান। এর একদিন পরে শুক্রবার রাতে একটি কন্যা সন্তান প্রসব করে সোনিয়া।

এ ঘটনা নিয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিন’-এ পরপর দুটি সংবাদ প্রকাশিত হলে প্রশাসনিক কর্মকর্তারা নড়েচড়ে বসেন। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাস ও জেলা পুলিশ সুপার পঙ্কজ কুমার রায় বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেন মোরেলগঞ্জ ইউএনও ও ওসিকে। শনিবার বিকেলে তারা ঘটনার তদন্ত করে মামলা দায়েরের পরামর্শ দেন মেয়েপক্ষকে।

থানায় মামলা দায়ের হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন হাসিবের পিতা হালিম মাল। তিনি বলেন, আমার ছেলেকে আইনের আশ্রয়ে দোষী সাব্যস্ত করতে পারলে আমরা সবকিছু মেনে নেব। এদিকে থানায় মামলা দায়ের হচ্ছে এমন খবর শুনে বেলা ১১টা থেকে নিখোঁজ রয়েছে হাসিব।

থানার ওসি মো. রাশেদুল আলম বলেন, শিশুর সাথে অন্ত:সত্ত্বা তরুণীর বিয়ে ও একদিন পরে সন্তান প্রসবের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। সংশ্লিষ্টদের ডিএনএ টেষ্ট করানো হবে। হাসিবকে আটকের চেষ্টা চলছে। আপাতত তাকে কিশোর অপরাধী হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

উপরে