শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

রংপুরে দ্রব্যমূল্যের দাম কমানোর দাবিতে বিক্ষোভ

প্রকাশের সময়: ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ - সোমবার | জুন ৫, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডিঃ
নুর হাসান চান-রংপুরঃ চালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের দাম কমানো ও অব্যাহত লোডশেডিং বন্ধের দাবিতে এবং গণবিরোধী বাজেট প্রত্যাখান করে গতকাল ৪ জুন রবিবার সকাল ১১টায় বাসদ (মার্কসবাদী) রংপুর জেলা শাখার উদ্যোগে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। দলের জেলা সমন্বয়ক কমরেড আনোয়ার হোসেন বাবলু’র সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা কমিটির সদস্য পলাশ কান্তি নাগ, আহসানুল আরেফিন তিতু প্রমুখ। বক্তরা বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে অন্য বছরের তুলনায় সব পণ্যের যথেষ্ট মজুদ আছে। সুতরাং সরবরাহ ঘাটতি দেখিয়ে দাম বাড়ানোর কোন যুক্তি নেই। কিন্তু বাস্তব চিত্র হলো বাজারে মোটা-সরু সব ধরণের চালের দাম বেড়েই প্রতি কেজিতে ১০-১২ টাকা। শুধুমাত্র চাল কেনা বাবদ একটি পরিবারকে মাসে অন্তত: ৫০০-৬০০ টাকা বাড়তি খরচ করতে হচ্ছে। আন্তর্জাতিক বাজারে গত ১ বছরে চাল, ডাল, গম, তেল, চিনি, ছোলা, পেয়াজ, রসুনসহ অধিকাংশ পণ্যের দাম কমেছে। তারপরও দেশের বাজারে দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন উর্দ্ধগতি থেমে নেই। এটা স্পষ্ট যে, সরকারই সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের অবাধ মুনাফার সুযোগ করে দিয়েছে। বক্তারা আরো বলেন, বিদ্যুতের অব্যাহত লোডশেডিং এর কারণে জনদুর্ভোগ চরমে। এই সরকারই এক সময় বলেছিলেন যে, তারা নাকি লোডশেডিং কে জাদুঘরে পাঠাবে। এই যে ভয়াবহ লোডশেডিং এখন সরকার কি বলবে? নেতৃবৃন্দ, চলতি বাজেটকে জনগণের ঘাড়ে ভ্যাটের বোঝা চাপানোর বাজেট আখ্যায়িত করে বলেন এই বাজেট দরিদ্র-সাধারণ মানুষের জীবনকে আরো দুর্বিসহ করে তুলবে। জনজীবনের কষ্ট লাঘবের কোন উদ্যোগ বাজেটে পরিলক্ষিত হয়নি। জনস্বার্থ সংশি¬ষ্ট কৃষি, শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে বরাদ্দ কমিয়ে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দান, লুটপাটকারী-দুর্নীতিবাজদের কেবল প্রশয় দিবে না, বিদ্যমান শোষণ লুটপাটকে আরো তীব্র করে তুলবে। নেতৃবৃন্দ, সম্প্রতি লংদুতে একজন বাঙ্গালী সেটেলার যুবকের মৃতুকে কেন্দ্র করে সেনাবাহিনীর সহায়তায় পাহাড়ী জনগোষ্ঠীর বাড়ীঘর ও দোকানপাট নৃশংস হামলার তীব্র নিন্দা জানান। সেইসাথে, জনজীবনের সংকট নিরসনে সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে সামিল হওয়ার আহবান জানান।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে