বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৫ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

দৌলতখান সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানেরন বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগে বিক্ষোভ

প্রকাশের সময়: ৩:২৩ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | জুন ৩০, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:
পুষ্পেন্দু মজুমদার-ভোলা প্রতিনিধি: ভোলার দৌলতখান উপজেলার চরপাতা ইউনিয়নে চেয়ারমানের বিরুদ্ধে জেলেদের চাল আত্মসাতসহ বিভিন্ন দুর্নীতি অনিয়ম ও ইউএনও’র উপর হামলার প্রতিবাদে  চেয়ারম্যান মোশারেফ হোসেনের বিচারের দাবিতে  শুক্রবার বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে   ইউপি মেম্বারসহ এলাকার কয়েক হাজার সাধারণ জনগন ।  বেলা ১১ টা থেকে দৌলতখান উপজেলার সেলিম চত্বরে চরপাতা ইউনিয়নের কয়েক হাজার মানুষ অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।  সমাবেশে বিক্ষোভ সমাবেশে ওই চেয়ারম্যানের দুর্নীতির ফিরিস্তি তুলে ধরেন ইউপি মেম্বাররা।
মেম্বাররা অভিযোগ করেন, ঈদের দুই দিন আগে চেয়ারম্যান মোশাররফ জেলেদের ভিজিএফ’এর ১২৮ টন চাল জেলেদের না দিয়ে তার বহিরাগত পালিত লোকদের মাধ্যমে লুট করার সময় ইউএনও বাধা দেন। ওই সময় চেয়াম্যান মোশাররফ ইউএনওকে লাঞ্ছিত করেন। একই সময় চেয়ারম্যানের বহিরাগত লোকজনরা হামলা চালায়। পুলিশ ওই চেয়ারম্যানকে আটক করে। চরপাতা ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন, মেম্বার ফুরমুজুল হক, মেম্বার বিল্লাল হোসেন, মোঃ সেলিম লিখিত অভিযোগ করেন, চেয়াম্যান মোশাররফ ওই পরিষদের প্রায় ২০ লাখ টাকা আত্মসাত করেছেন। ১২ জন মেম্বারের মধ্যে ১১ জন তার বিরুদ্ধে অনাস্থা দিয়েছেন। স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় থেকে গত ২২ জুন তাকে চুড়ান্তভাবে  বরাখাস্ত করে। ওই আদেশ ইউএনও মোঃ কামাল হোসেন তার হাতে দিলে তিনি ক্ষিপ্ত হন। তারা চেয়ারম্যানের শাস্তি দাবি করেন। এদিকে ইউএনও’র ওপর হামলা , ও এলাকাবাসীদের ওপর হামলার ঘটনায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ১টি মামলা করা হয়েছে। ওই সব মামলায় পুলিশ চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করে। অপর দিকে গত ২ দিন আগে ভোলা শহরের সদর রোডে ইউপি চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেনের মুক্তির দাবিতে চরপাতা ইউনিয়নের কয়েক শত নারী পুরুষ মানববন্ধনসহ বিক্ষোভ করে। এসময় মোশারেফ সর্মথকরা অভিযোগ করেন,চরপাতা ইউনিয়নের চেয়ারম্যানকে গ্রেফতারের সময় মারধর করে রক্তাক্ত করা হয়। তার মুখে কয়েকটি সিলাই পর্যন্ত দেওয়া হয়।  তাকে মেম্বাররা ষড়যন্ত্র করে মিথ্যা অভিযোগে তুলে গ্রেফতার করা হয়।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে