বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

মুস্তাফিজ-সাকিবে সতর্ক অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশের সময়: ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | আগস্ট ২৪, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকমডটবিডি:

মুস্তাফিজুর রহমান যখন আইপিএলকে নিজের কাটারে নাচাচ্ছিলেন, তখন ব্যাপারটা প্রতিপক্ষ হিসেবে বিস্মিত চোখেই দেখেছেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। নানা কারণেই মুস্তাফিজ আগের মতো সাফল্য এখন ঠিক পাচ্ছেন না। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ান এই অলরাউন্ডার ভালো করেই জানেন যে, মুস্তাফিজ সবসময়ই ভয়ঙ্কর এক অস্ত্র। ব্যাটসম্যান হিসেবে খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখেছেন মুস্তাফিজকে। সেই দেখা থেকে জানেন এই টেস্ট সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার জন্য বড় একটা চ্যালেঞ্জ হতে পারে এই কাটার মাস্টারকে খেলা। তবে শুধু মুস্তাফিজ নন, বোলার হিসেবে তারা একইরকম সতর্কভাবে চেয়ে থাকবেন সাকিব আল হাসানের দিকে। ম্যাক্সওয়েল পরিষ্কার বললেন, বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারকে নিয়েও তারা সমান সতর্ক।
মুস্তাফিজের বোলিংয়ের বিশ্লেষণ করে ম্যাক্সওয়েল দেখালেন যে, মুস্তাফিজকে খেলাটা কার্যত খুব কঠিন একটা ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে, ‘মুস্তাফিজ অবশ্যই একজন ব্যতিক্রমী বোলার। ও যে বছর আইপিএলে খুব ভালো করলো, আমি সেবার ওকে খেলেছি। আমার মনে হয়, এরপর টেস্ট খেলতে খেলতে ওর পেস একটু কমেছে। তবে এখনো সে ভয়াবহ বোলার, যার কি না দারুণ বল সুইং করানোর ক্ষমতা আছে। সবচেয়ে বড় কথা হলো, তার স্লো বলের পেস পরিবর্তনটা অবিশ্বাস্য। আপনার আমার চেনা বাঁহাতি পেস বোলার সে নয়।’
এরপর আরেকটু এগিয়ে ম্যাক্সওয়েল বর্ণনা করেছেন, ঠিক কেন মুস্তাফিজকে খেলাটা যে কারো জন্য খুব কঠিন একটা ব্যাপার। তার অসামান্য কবজির উল্লেখ করে অস্ট্রেলিয়ান অলরাউন্ডার বলেছেন, ‘ওর কবজিটা মনে হয় অবিশ্বাস্য রকম নমনীয়। যার ফলে সে শেষ মুহূর্তে বলটা ফ্লিক করে দিতে পারে। ওর বাম্পার হোক আর স্লোয়ার, অ্যাকশনের ধরন ঠিক একইরকম। ওর এই পরিবর্তনটা ধরাই খুব কঠিন ব্যাপার।’
মুস্তাফিজের এইসব চ্যালেঞ্জ তো আছেই, ম্যাক্সওয়েল এরপর আবার দেখছেন সাকিবের কাছ থেকে আসা চ্যালেঞ্জও। বলছেন, সাকিবও ঠিক মুস্তাফিজের মতোই কঠিন হতে যাচ্ছেন, ‘সাকিবও মুস্তাফিজের মতো কঠিন। ও তো খুব অভিজ্ঞ খেলোয়াড়। বেশ কিছুকাল ধরে বিশ্বের একনম্বর অলরাউন্ডার। অসাধারণ একজন ক্রিকেটার। টেস্ট সিরিজে এদের প্রভাবটা কমাতে চাইলে এই দু’জনকে আমাদের খুব ভালো খেলতে হবে। আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে, আমরা যেনো আমাদের সেরাটা খেলতে পারি।’
সাকিব আল হাসানের সাথে ম্যাক্সওয়েলের একটা মিল হলো, দু’জনই স্পিনিং অলরাউন্ডার। তবে ম্যাক্সওয়েল বললেন, একটা পার্থক্য তাদের আছে। সেই পার্থক্যটা ভূমিকায়, ‘আমি মূলত ব্যাটসম্যান। আর সাকিব অনেক বেশি জেনুইন অলরাউন্ডার। আমি মূলত চেষ্টা করি রান করার। পাশাপাশি দলের প্রধান অফস্পিনারের দরকার হলে তাকে সাপোর্ট দিতে পারি।’
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে