বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ধান কাটা নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষ : ১৩ জন জখম

প্রকাশের সময়: ৫:১৬ অপরাহ্ণ - সোমবার | সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় জমির ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের গুরুতর জখম হয়েছে ১৩ জন। সোমবার সকালে আলমডাঙ্গার চিলাভালকি গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদেরকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ফালা, ধারালো অস্ত্রসহ লাঠিসোটা নিয়ে এক পক্ষ আরেক পক্ষের ওপর হামলা চালালে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন আলমডাঙ্গা উপজেলার চিলাভালকি গ্রামের লিটু শাহ, আশরাফ আলী, আজিজুল হক, শাহাবুদ্দিন, আমজাদ হোসেন, তোফায়েল হোসেন, কামাল হোসেন, আশাদুল হক, সেলিশ উদ্দিন, বিপ্লব হোসেন, ইবারত হোসেন ও মোশারেফ হোসেন।

গ্রামসূত্রে জানা গেছে, কয়েক মাস ধরে গ্রামের ইদগাহ মাঠে ঢোকার পথ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে গ-গোল চলে আসছে। এরই মধ্যে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আমজাদ হোসেনের লোকজন গ্রামের পাকড়াতলা মাঠে নিজেদের জমিতে ধান কাটতে গেলে আব্দুল কুদ্দুসের লোকজন বাধা দেয়। এতে উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে আহত হয় ১৩ জন। আহতদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

এক পক্ষের আবদুল কুদ্দস জানান, প্রতিপক্ষের লোকজন ঈদগাহ মসজিদে যাওয়ার পথে পগার(গর্ত) কাটছিল। এতে বাধা দিলে তারা রাম দা, ফালাসহ ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

অপর পক্ষের মোশারেফ হোসেন জানান, আমাদের জমির ধান কাটতে গেলে তারা বাধা দেয়। এতে তারা ধারালো অস্ত্রশস্ত্র দিয়ে কোপায় আমাদের লোকজনকে।
আলমডাঙ্গা থানার ওসি আকরাম হোসেন জানান ‘ধান কাটা নিয়ে সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে