শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দিল ভ্রাম্যমান আদালত, ৬ জন আটক ও কারাদন্ড

প্রকাশের সময়: ৮:৩১ অপরাহ্ণ - বুধবার | সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় দু’টি বাল্যবিয়ে বন্ধ করে কনেসহ ৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ। ভ্রাম্যমান আদালতে কনেসহ ৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ডাদেশ প্রদান করা হয়েছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বুধবার উপজেলার নগরবাড়ি গ্রামের মো. রুহুল আমিনের মেয়ে ও শ্রীমতি মাতৃমঙ্গল বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্রী রুবিনা আক্তার (১৪) এর সাথে একই গ্রামের আ. রব হাওলাদারের ছেলে সাদ্দাম হাওলাদারের বিয়ের দিন ধার্য ছিল। বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল পুলিশ নিয়ে ওই বাড়িতে গিয়ে বাল্যবিয়ে বন্ধ করে দেন। এসময় পুলিশ পাত্রী স্কুল ছাত্রী রুবিনা আক্তার, পিতা মো. রুহুল আমিন ও মা মিলি বেগম ও পাত্রের মা সেতারা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল পাত্রীর মা মিলি বেগম ও পাত্রের মা সেতারা বেগমকে ৩ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডাদেশ প্রদান করেন।
অপরদিকে একইদিন বিকেলে উপজেলার আস্কর গ্রামের আকবর মোল্লার মেয়ে ও আস্কর স্কুল এন্ড কলেজের নবম শ্রেণীর ছাত্রী বন্যা আক্তারের বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে পুলিশ পাত্রী বন্যা আক্তার, পিতা আকবর মোল্লাকে আটক করে নিয়ে আসে। এসময় ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশ্রাফ আহমেদ রাসেল পাত্রীর পিতা আকবর মোল্লাকে ৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন। এসময় উভয় শিক্ষার্থীর কাছ থেকে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত তারা বিয়ে করবে না মর্মে মুচলেকা আদায় করা হয়। দন্ডপ্রাপ্তদের বরিশাল জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উপরে