বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

সৌন্দর্য হারাচ্ছে ইবির লেক: দেখার কেউ নেই

প্রকাশের সময়: ১২:১১ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

ইমানুল সোহান, ইবি প্রতিনিধি- পাট শুকানো , লেকের পানিতে পাট পঁচানোর ফলে সৌন্দর্য হারাচ্ছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের মফিজ লেক। স্থানীয় কিছু পাট চাষী এই লেকটিকে পাট পঁচানো ও শুকানোর কাজে ব্যবহার করছে। এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষের যথেষ্ঠ উদাসীনতা লক্ষ্য করা গেছে।।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের একমাত্র লেক, মফিজ লেক। বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্ব পশ্চিমে এর অবস্থান। দিন দিন স্থানীয় পাট চাষীদের দৌরাত্মে হারিয়ে যাচ্ছে এর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য। স্থানীয় চাষীরা তাদের প্রভাব খাটিয়ে লেকের পানিতে পাট পঁচাচ্ছে। লেকের পাড় ঘেষে সারি সারি পাট ও পাট কাঠি শুকানোর জন্য রেখে দিয়েছে। লেকের পাড়ে বসার জায়গাটিও নেই। পাটের পঁচা গন্ধে পানি দূষিত হয়ে গেছে। প্রচন্ড দূর্গন্ধ আশেপাশে ছড়িয়ে যাওয়ায় শিক্ষক শিক্ষার্থীরা এখন আর সেখানে আসেন না। বসে না বিকেলের আড্ডা।

একাধিক শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, আমরা এখন আর মফিজ লেকে যাই না। গেলেও সেখানে বসার মতো পরিবেশ নেই। কারণ পাট পঁচানোর গন্ধে সেখানে যাওয়া যায় না। এমনকি পাটকাঠি শুকানোর জন্য লেকটির আশেপাশের সব জায়গা ব্যবহার করছে তারা। কোথায় বসবো?

এবিষয়ে আগেও বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পরও টনক নড়েনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের। ফলে লেকটি এখন পাটচাষীদের দখলে। পরিনত হয়েছে পাট পঁচানো ও শুকানোর স্থান হিসেবে।
এ বিষয়ে এস্টেট শাখার উপ রেজিস্ট্রার মোঃ হারুন-অর-রশীদ বলেন, ‘এর আগে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো। কিন্তু স্থানীয় চেয়ারম্যান ও চাষীদের আবেদনের ভিত্তিতে এ বারের মতো তাদেরকে লেকটি ব্যবহার করতে দেয়া হয়েছে।’

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে