বুধবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

‘রোহিঙ্গাদের বিষয়টি সিপিএ প্রতিনিধিদের অবহিত করবে বাংলাদেশ’

প্রকাশের সময়: ৪:১৪ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | নভেম্বর ৩, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকমডটবিডি: ঢাকায় অনুষ্ঠেয় কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের (সিপিএ) সম্মেলনে আসা বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের বর্তমানে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি এবং এ নিয়ে সৃষ্ট সঙ্কট বিষয়টি অবহিত (ব্রিফিং) করবে বাংলাদেশ।  বাংলাদেশের পক্ষ থেকে রবিবার (৫ নভেম্বর) পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী তাদের এ ব্রিফ করবেন বলে জানিয়েছেন সিপিএ’র চেয়ারপারসন ও জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

আজ শুক্রবার দুপুরে সিপিএ নির্বাহী কমিটির সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, রাখাইনে নির্যাতনের ভয়ে যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে তাদের আমরা দ্রুত মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে চাই। এ নিয়ে সরকার কূটনৈতিক তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যে ৫ দফা প্রস্তাব দিয়েছেন তা আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তুলেও ধরা হচ্ছে; যা এরই মধ্যে বেশ আলোচিত।

শিরীন শারমিন বলেন, সিপিএ সম্মেলনে সদস্য দেশগুলোর জনপ্রতিনিধিরা অংশ নিয়েছেন। তাদের সমর্থন পাওয়ার এটি একটি মোক্ষম সুযোগ। এই কারণে বিষয়টিকে এ সম্মেলনের আলোচনায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, তাদের (সিপিএভুক্ত দেশগুলোর জনপ্রতিনিধি) রোহিঙ্গা ইস্যু অবহিত করতে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী ব্রিফ করবেন। ৫ নভেম্বর (রবিবার) বিকেল ৩টা থেকে ৫টা পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এ ব্রিফ অনুষ্ঠিত হবে।

ওইদিন এ সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো নিয়ে স্পিকার বলেন, আমরা রোহিঙ্গাদের দ্রুত ফেরত পাঠাতে সিপিএ সম্মেলনে আসা জনপ্রতিনিধিদের সমর্থন ও সহযোগিতা চাইবো। সিপিএভুক্ত ৪৪টি দেশের ১১০টি ব্রাঞ্চের জনপ্রতিনিধিরা সম্মেলনে অংশ নিচ্ছেন। তাদের বিষয়টি অবহিত করলে দেশে ফিরে নিজ নিজ সংসদেও রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর বিষয়ে সোচ্চার ভূমিকা রাখতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় সিপিএ এর ৬৩তম সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। সংস্থাভুক্ত দেশগুলোর পার্লামেন্টে নারী প্রতিনিধিত্ব বাড়ানোর বিষয়টিও গুরুত্ব পাবে সম্মেলনের আলোচনায়। এক্ষেত্রে যেসব বাধা আছে সেগুলো নিরসনে করণীয় নিয়েও কথা হবে।

উপরে