শনিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ | ২রা পৌষ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

স্বামীকে মেরে ১৩ বছর ধরে সেপটিক ট্যাংকে রেখেছে স্ত্রী!

প্রকাশের সময়: ২:৫০ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | ডিসেম্বর ৭, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

সেক্স র‍্যাকেট ফাঁস করার জন্য ফরিদা ভারতী নামে এক মহিলার বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। কিন্তু সেই বাড়িতে ঢুকে যে এই দৃশ্য দেখা যাবে সেটা দুঃস্বপ্নেও ভাবেনি পুলিশ। সেপটিক ট্যাংক ভিতর থেকে বেরোল একটা আস্ত কঙ্কাল।

ওই মধুচক্র থেকে চার মহিলাকে উদ্ধার করার পর পুলিশ দ্বিতীয়বার ওই বাড়িতে তল্লাশি চালাতে যায়। তখনই দেখে তার স্বামীর দেহ রয়েছে সেপটিক ট্যাংকের ভিতর। ১৩ বছর আগে ওই মহিলা তার স্বামীকে খুন করে সেপটিক ট্যাংকে দেহটি ফেলে দিয়েছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছে পুলিশ।

গত সোমবার প্রথম ওই বাড়িতে যায় পুলিশ। মুম্বইয়ের গান্ধীপাড়ার নিজের বাড়িতে মধুচক্র চালায় ফরিদা। গোপন সূত্রে এই খবর পেয়েই পুলিশ তল্লাশি চালাতে যায়। সেইসময়েই চার মহিলাকে উদ্ধার করা হয় ওই ফরিদা সহ দু’জনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে পুলিশ জানতে পারে শুধুমাত্র মধুচক্র চালানোই নয়, স্বামী সহ একাধিক ব্যাক্তিকে খুনও করেছে সে।

জেরায় স্বামীকে খুন করার কথা স্বীকার করে নেয় ফরিদা। ১৩ বছর আগে স্বামী সহদেবকে হত্যা করে বাথরুমের নিচে সেপটিক ট্যাংকে দেহ ফেলে দিয়েছে বলে জানায়। এরপর বুধবার সেই দেহ খুঁড়ে বের করা হয়। মাথায় আঘাত করে স্বামীকে মেরেছিল বলে জানায় ফরিদা। খুনের কারণ এখনও জানা যায়নি। তদন্ত চালাচ্ছে পুলিশ।


আর্কাইভ

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে