বুধবার, ২১ নভেম্বর, ২০১৮ | ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

রাজশাহীতে স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

প্রকাশের সময়: ১২:২০ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | ডিসেম্বর ১৪, ২০১৭

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

রাজশাহীর বাঘায় স্বামী-স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার পাকুড়িয়া গ্রাম থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এরা হলেন, ওই গ্রামের আবদুল মান্নান (৪৮) ও তার স্ত্রী কাজলী বেগম (৪৪)।

স্থানীয়রা জানান, বাঘা উপজেলার পাকুড়িয়া গ্রামের আবদুল মান্নান ও তার স্ত্রী কাজলী বেগম বুধবার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত সাড়ে তিনটার দিকে কাজলী হঠাৎ চিৎকার দিয়ে ওঠেন। এরপর পাশের ঘর থেকে আবদুল মান্নানের মা আফরোজা বেগম ও ছেলে সাব্বির হোসেন (১৩) গিয়ে দেখেন কাজলী বেগমের অবস্থা বেগতিক। দ্রুত তাকে উদ্ধার করে বাঘা থানা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনার পর সকাল নয়টার দিকে বাড়ির পাশে একটি লিচু বাগানে ঝুলন্ত অবস্থায় আবদুল মান্নানের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এলাকাবাসী জানায়, আবদুল মান্নান ও কাজলী বেগমের দুই ছেলে রয়েছে। বড় ছেলে রিশন আহম্মেদ লালপুরে নানার বাড়ি থেকে মঞ্জিলপুকুর কলেজে লেখাপড়া করে।

ছোট ছেলে সাব্বির হোসেন কালিদাসখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র।

ছেলে সাব্বির হোসেন জানায়, পারিবারিক কলহের জের ধরে বাবা প্রথমে তার মাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। এরপর নিজেও গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করে।

এদিকে বাঘা থানার পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল হাসান রেজা বলেন, মৃত্যুর ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে নিহতদের ছেলে দাবি করেছে, তার মাকে প্রথমে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার বাবা আত্মহত্যা করেছে।

উপরে