বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

জলঢাকায় হারবাল পন্যের মান নিয়ন্ত্রন শীর্ষক প্রশিক্ষন কর্মশালা

প্রকাশের সময়: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ - রবিবার | জুন ৩, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:
মোঃ হাসানুজ্জামান সিদ্দিকী হাসান, জলঢাকা, নীলফামারী প্রতিনিধি: নীলফামারী জলঢাকায় মানবসম্পদ হারবাল পন্য ও আয়ুর্ব্বেদীক ঔষধের মান নিয়ন্ত্রন এবং গুনগতমান নিশ্চিতকরন শীর্ষক প্রশিক্ষন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ হারবাল প্রোডাক্টস ম্যানুফ্যাকচারিং এসোসিয়েশন ( ইঐচগঅ ) এবং প্লান্টস এন্ড হারবাল প্রোডাক্টস বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিল (গচঐচইচঈ) এর যৌথ আয়োজনে ২রা জুন শনিবার সকালে কচুকাঁটা বেইলী ব্রীজ সংলগ্ন (ইউএসটি) অফিসের অডিটোরিয়াম হলরুমে এ প্রশিক্ষন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ হারবাল প্রোডাক্টস ম্যানুফ্যাকচারিং এসোসিয়েশনের কোষাধক্য ডাঃ আনোয়ার মুসতাকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, নীলফামারী -৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, জলঢাকা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ফয়সাল মুরাদ, জেলা যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আলী আর রেজা এবং ডাঃ আব্দুল গনী ইউনানী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ হাকীম মোকছেদুল আলম। বিশেষ মেহমান হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামিলীগ সিডনি অস্ট্রেলিয়ার সাংগঠনিক সম্পাদক আইজিদ আরাফাত অরুপ ও বাংলাদেশ টেলিভিশন সাংবাদিক এসোসিয়েশনের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম সিয়াম প্রমুখ। উক্ত প্রশিক্ষন কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা মর্ডান ইউনানী ও আয়ুর্ব্বেদীক মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল আব্দুর রব খাঁন। এ প্রশিক্ষন কর্মশালায় নীলফামারী জেলার ৬টি উপজেলা থেকে প্রায় দেড় শতাধিক পল¬ী চিকিৎসক অংশ গ্রহন করেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি গোলাম মোস্তফা বলেন, আমাদের দেশে উৎপাদিত হারবাল ও আয়ুর্ব্বেদীক ঔষধ, বাজারজাত এবং সঠিক মান নিয়ন্ত্রনের মাধ্যমে ইতি মধ্যেই ব্যাপক সারা জাগিয়েছেন এবং দেশের গন্ডি পেড়িয়ে বিদেশে ঔষধ সরবরাহ হচ্ছে। এটি বাংলাদের জন্য উজ্জল নক্ষত্র। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন বলেন, হারবাল ও আয়ুর্ব্বেদীক ঔষধের সঠিক মান নিয়ন্ত্রন রেখে আমাদের দেশের ঔষধ শিল্পগোষ্টি কোম্পানী গুলো যে অবদান রেখেছে তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবীদার। এ সময় তিনি বলেন, খাঁসজমি, এসএইটটি ক্যানেলের পতিত জমিসহ বাসাবাড়িতে দৃশ্যমান ঔষধি গাছ চাষাবাদ করে ব্যাপক অর্থ উপার্জন করা সম্ভব। এ জন্য দরকার সঠিক মনিটরিং। আমরা চেষ্টা করবো যাতে এ শিল্পখ্যাতটি আরো উন্নত হয়ে উঠে।প্রশিক্ষন শেষে পল¬ী চিকিৎসকদের মাঝে সনদ প্রদান করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য সচেতনতা বিষয়ক দিক নির্দেশনার উপর গুরুত্বপূর্ন বক্তব্য ও সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ আয়ুর্ব্বেদীক মেডিকেল এসোসিয়েশনের নীলফামারী জেলা আহবায়ক হাকীম মাসউদুল ইসলাম দুলু।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে