মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

রেস্তোরাঁ থেকে বের করে দেওয়া হল হোয়াইট হাউসের মুখপাত্রকে!

প্রকাশের সময়: ৭:০৩ পূর্বাহ্ণ - সোমবার | জুন ২৫, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হয়ে কাজ করায় ভার্জিনিয়ার একটি রেস্তোরাঁ থেকে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডার্সকে বের করে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। কাগজপত্রহীন অভিবাসীদের কাছ থেকে সন্তানদের আলাদা করতে ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকান্ডের প্রতিবাদে শুক্রবার রাতে লেক্সিংটনের রেড হেন রেস্তোরাঁ থেকে স্যান্ডার্সকে বের করে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি। রেস্তোরাঁ কর্মীদের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারিকে বেরিয়ে যেতে বলা হয় বলে ওয়াশিংটন পোস্টকে জানিয়েছেন রেস্তোরাঁর স্বত্বাধিকারীদের একজন স্টেফানি উইলকিনসন। ট্রাম্পের এ মুখপাত্র ‘একটি অমানবিক ও অনৈতিক প্রশাসনের পক্ষে কাজ করেন’ বলে বিশ্বাস তার। তোমরা আমাকে কী করতে বলো। আমি তাকে (স্যান্ডার্স) চলে যেতে বলতে পারি,” কর্মীদের এমনটাই বলেছিলেন স্টেফানি। উত্তরে তারা ‘বিষয়টিতে সম্মতি জানিয়েছিল’বলেও জানান এ নারী। শুক্রবার রাতের কথোপকথন সম্পর্কে স্টেফানি বলেন, “আমি স্যান্ডার্সকে বাইরে বেরিয়ে এসে আমার সঙ্গে কথা বলতে বলি। তাকে জানাই, সততা, সহযোগিতা ও সহমর্মিতার মতো বেশকিছু বিষয়ে রেস্তোরাঁর নিজস্ব মানদন্ডে আছে, যা উর্ধ্বে তুলে ধরা উচিত বলেই মনে করছি। আমি বলি, ‘আমি আপনাকে চলে যাওয়ার জন্য বলছি’।
উইলকিনসন জানান, তাৎক্ষণিক উত্তরে স্যান্ডার্সও বলেন, “ঠিক আছে, আমি চলে যাচ্ছি।”
এরপর স্যান্ডার্স তার টেবিলে ফেরত গিয়ে তার জিনিসপত্র নিয়ে রেস্তোরাঁ থেকে বের হয়ে যান। তার টেবিলে থাকা অন্যান্যের সেখানে থাকার জন্য স্বাগত জানানো হলেও তারা থাকেননি বলে জানিয়েছেন উইলকিনসন। তারা চলে যাওয়ার পর রেস্তোরাঁ কর্মীরা খাবার সরিয়ে নিয়ে টেবিল পরিষ্কার করে ফেলে বলে জানিয়েছেন তিনি। ভার্জিনিয়ার ওই ২৬ আসনবিশিষ্ট ‘ফার্ম-টু-টেবিল’ রেস্তোরাঁটি থেকে তাকে বের করে দেওয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন স্যান্ডার্সও। টুইটারে দেওয়া প্রতিক্রিয়ায় স্টেফানিকে একহাত নিয়েছেনও হোয়াইট হাউসের এ মুখপাত্র। তার কর্মকান্ডেই তার সম্পর্কে আমার চেয়েও বেশি কিছু জানায়,” বলেছেন তিনি। মেক্সিকো সীমান্তে অভিবাসী শিশুদের বাবা-মার কাছ থেকে আলাদা করার বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে দেশে-বিদেশে তুমুল সমালোচনার মধ্যেই ট্রাম্প প্রশাসনের এ গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাকে এ হেনস্থার শিকার হতে হল। কয়েকদিন আগে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসির একটি মেক্সিকান রেস্তোরাঁয় ট্রাম্পের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্সজেন নিয়েলসনকেও দুয়োধ্বনিও শুনতে হয়েছিল। কাগজপত্রহীন অভিবাসীদের বিচারের মুখোমুখি করতে তাদেরকে সন্তানদের কাছ থেকে আলাদা করার নীতি বাস্তবায়নে ট্রাম্প প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের মে ও জুন দুই মাসেই দুই হাজার ৩০০ শিশুকে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হতে হয় বলে জানিয়েছে বিবিসি।
দেশে-বিদেশে তুমুল সমালোচনার মুখে বুধবার অভিবাসীদের কাছ থেকে শিশুদের আলাদা করার কর্মসূচি স্থগিত করলেও কাগজপত্রহীন অভিবাসীদের ব্যাপারে তার প্রশাসনের ‘জিরো টলারেন্স’ অটুট থাকবে বলে জানান ট্রাম্প। সমালোচকরা রেড হেন রেস্তোরাঁ থেকে স্যান্ডার্সকে বের করে দেওয়ার ঘটনাকে ‘বৈষম্যমূলক’ বললেও অনেকেই একে স্বাগত জানিয়েছেন। তারা এ ঘটনাকে মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের সা¤প্রতিক এক রায়ের সঙ্গেও তুলনা করছেন, যেখানে বিচারক সমকামী এক জুটির বিয়ের কেক বানাতে অস্বীকৃতি জানানো বেকারির পক্ষ নিয়েছিলেন। স্যান্ডার্সকে রেস্তোরাঁ থেকে বের করে দেওয়ার খবর গত শনিবার জানাজানি হলে রেড হেনের ফেইসবুক প্রোফাইলে ১ ও ৫ রেটিং দেওয়ার ধুম পড়ে, বাড়তে থাকে অনলাইন রিভিউর সংখ্যাও। হাজারো ব্যবহারকারীকে শুক্রবার রাতের ঘটনায় রেড হেনের পক্ষেই তাদের অবস্থানের কথা জানাতে দেখা গেছে। পছন্দ হয়েছে প্রতিষ্ঠানটিকে। নৈতিকভাবে উন্নত, খাবারও নিশ্চয়ই সুস্বাদু হবে, আশাবাদ একজনের।
নেতিবাচক এক রিভিউতে ব্যবহারকারীদের একজন শুক্রবার রাতের ঘটনায় উপস্থিত ছিলেন বলেও জানান। রেড হেনেই আমি রাতের খাবার খেয়েছিলাম, সাক্ষী ছিলাম সারাহ স্যান্ডার্সের প্রতি নির্দয় আচরণেরও। বীতশ্রদ্ধ ও আতঙ্কিত হয়েছি। খাবারের জন্য সেখানে আর কখনোই যাব না, রিভিউতে এমনটাই বলেন ওই ব্যবহারকারী। স্যান্ডার্সের বাবা আরকানসোর সাবেক গভর্নর মাইক হাকেবি ভার্জিনিয়ার রেস্তোরাঁটির কর্মকান্ডেকে ‘ভিন্নমতের প্রতি অসহিষ্ণুতা’ হিসেবে অ্যাখ্যা দিয়েছেন।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে