মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

বেশ কয়েকজন আহত, এদের মধ্যে নূরের অবস্থা আশঙ্কাজনক

প্রকাশের সময়: ৪:৩৭ অপরাহ্ণ - শনিবার | জুন ৩০, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকমডটবিডি: বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খান কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর আজকের হামলার বিষয়ে বলেছেন, আন্দোলনকারী অনেকের ওপর হামলা করেছে ছাত্রলীগ। এতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে নূরের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

আজ শনিবার সকালে হামলার পর তিনি একথা জানান।

তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সংবাদ সম্মেলন শুরুর আগ মুহূর্তে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা হামলা করেছে। আমরা এর প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি।

তবে তার এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে ছাত্রলীগ। তাদের দাবি, কোটা নিয়ে আন্দোলনকারীদের অন্তকলহের জের ধরে এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, আজ বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। তবে তার আগেই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সেখানে অবস্থান নেয়। সংবাদ সম্মেলনের জন্য কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের একটি দল কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে আসার পর ‘শিবির ধর’, ‘শিবির ধর’ বলে অতর্কিত হামলা চালানো হয়। নুরকে ঘিরে ধরে মারধর করা হয়। এসময় ‘ওরে মেরে ফেল’, ‘কলিজা কাট’ ইত্যাদি উক্তি করে তাকে লাথি, ঘুষি, চড়-থাপ্পড় দিতে থাকে হামলাকারীরা। একপর্যায় নুর মাটিতে পড়ে গেলে শোয়া অবস্থায় তাকে লাথি মারতে থাকে তারা। পরে আহতদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পুলিশে রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মারুফ হোসেন সরদার বলেন, বিষয়টি আমরা শুনেছি। কিন্তু আমরা চাইলেই ক্যাম্পাসের ভেতরে যেতে পারি না। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে