বুধবার, ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ | ৩০শে কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

পরিবহন ধর্মঘটে গাইবান্ধায় চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা

প্রকাশের সময়: ৯:১৪ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | আগস্ট ৩, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

ফরহাদ আকন্দ, গাইবান্ধা প্রতিনিধি : বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়াকে কেন্দ্র করে নিরাপদ সড়কের দাবিতে চলমান আন্দোলনে নিরাপত্তাহীনতাকে কারণ দেখিয়ে গাইবান্ধায় অঘোষিত পরিবহন ধর্মঘট শুরু করেছে পরিবন শ্রমিকরা। শুক্রবার সকাল থেকেই তারা অনির্দিষ্টকালের এ ধর্মঘটে নেমেছেন। এদিকে হঠাৎ বাস চলাচল বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।

আজ শুক্রবার (০৩ আগস্ট) সকাল থেকে গাইবান্ধা বাস টার্মিনাল হতে দুরপাল্লার কোন বাস চলাচল করতে দেখা যায়নি। ফলে দুর্ভোগে পড়েছেন বিভিন্ন জায়গার উদ্দেশ্যে বের হওয়া মানুষেরা।

সরে জমিনে বাস টার্মিনাল ঘুরে দেখা গেছে, টার্মিনাল থেকে কোন বাস ছাড়ছে না এবং বাহির থেকে কোন বাস টার্মিনালে প্রবেশ করছে না। অনেক যাত্রী টার্মিনালে এসে বাস না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন। বাস বন্ধের কারণ কয়েক জন শ্রমিকের কাছে জানতে চাইলে সবার কাছে একই উত্তর পাওয়া যায় নিরাপত্তাহীনতার কারণে তারা বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে। রাস্তায় শিক্ষার্থীরা গাড়ি থামিয়ে কাগজপত্র এবং লাইসেন্স দেখতে চায় এবং লাঞ্চিত করে এ কারনেই আমরা বাস চলাচল বন্ধ রেখেছি।

বাসের হেলপার মুকুল মিয়া বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা থেকে গাইবান্ধায় এসেছি। পাবনা জেলায় বাড়ি হওয়ায় বাস চলাচল বন্ধ থাকার কারণে বাড়ী ফিরতে পারছিনা।

বাস চালক মিঠু মিয়া বলেন, বিভিন্ন পরিবহনে ভাংচুর করছে শিক্ষার্থীরা। এতে শ্রমিক ও মালিকদের জানমালের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। তাই নিরাপত্তাহীনতার কথা ভেবেই বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। আন্দোলনের কোন সুরহা না হওয়া পর্যন্ত আমরা বাস চলাচল বন্ধ রাখবো।

শ্রমিক ইউনিয়নের সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহম্মেদ বলেন, বাস চালাচল বন্ধের বিষয়ে আমাদের কেন্দ্রীয় কমিটির কোন নির্দেশ নেই। বাস চালকরা তাদের নিরাপত্তার কারণেই বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে। তবে বাস বন্ধের ব্যাপারে আমরা শ্রমিক ইউনিয়ন থেকে কোন নির্দেশ প্রদান করিনি বাস চালকরা নিজেরাই এটা করেছে।

উপরে