শুক্রবার, ১৬ নভেম্বর, ২০১৮ | ২রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

এক রুটের সব বাস এক রঙের ‘আনিসুল হকের মৃত্যুর পর এই উদ্যোগ বন্ধ হয়ে গেছে’

প্রকাশের সময়: ১২:০৬ অপরাহ্ণ - বুধবার | আগস্ট ৮, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি 

পরিবহণ খাতের বিশৃংখলা নিয়ে বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক ড. মো. মাহবুব আলম তালুকদার বলেন, আমরা অনেকদিন ধরে প্রস্তাব করছি রুট ভাগ করে বাসের রঙ নির্ধারণ করে দেওয়া। এক রুটের সব বাস এক রঙের। এই নিয়মটা প্রতিষ্ঠা করতে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক কাজ শুরু করেছিলেন। তার মৃত্যুর পরে এই উদ্যোগ আবার বন্ধ হয়ে গেছে।

মাহবুব আলম তালুকদার বলেন, আমাদের পরিবহণ খাতটায় দারুন বিশৃংখলা। কোন বাস কোথায় যাবে তার কোনো ঠিক ঠিকানা নেই। কোন রুটে কয়টা বাস লাগবে বা কত যাত্রী চলাচল করে তার কোনো সঠিক হিসাব করা হয় না, বাস নামিয়ে দেওয়া হয়। সরল চোখে দেখে যে কেউ বলতে পারবে না যে কোন বাস কোন রুটে চলে। অথবা কোনো বাস যদি নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে অন্য রুটে যায় এটাও সহজে বোঝার উপায় নেই। তবে আনিসুল হক যে উদ্যোগ নিয়েছিলেন তা বাস্তবায়ন হলে কিছুটা হলেও সমাধান হতো।

শ্রমিক ও চালকদের নিয়ে ড. তালুকদার বলেন, সারাবিশ্বের কোনো আইনে লেখা নেই চালককে অমুক ক্লাস পর্যন্ত শিক্ষিত হবে। কিন্তু এটা অবশ্যই লেখা আছে, চালককে দক্ষ হতে হবে। যেমন— সারা পৃথিবীতে ট্রাফিক সাইনগুলো ছবি দিয়ে প্রকাশিত হয়। একজন বড় মানুষ একটা ব্যাগ কাঁধে বাচ্চাকে ধরে রেখেছে, অর্থাৎ সামনে স্কুল। একটা মাইকের ছবি ওপর একটা দাগ কাটা, মানে হর্ন দেওয়া নিষেধ। রেলের লাইন আঁকা মানে সামনে রেল ক্রসিং। এটা মানার প্রবণতা ক’জনের আছে বা না মানলে কী বিধান?

ছোটরা গাড়ি চালাচ্ছে— এটা আপনি আমি যেমন দেখতে পাই, ট্রাফিকও পায়। দায়টা তাহলে শুধু পরিবহণ শ্রমিকদের না। আবার আইনে লেখা আছে, একটা বাসে তিন জন চালক থাকবে। বাস মালিকরা বাস কন্ট্রাক্টে দিয়ে দিন শেষে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা গুনে নেন। শ্রমিকরা মুনাফা বাড়াতে এক হাতেই কাজ সারে। তাহলে দায় কীভাবে একা শ্রমিকের হয়?

তিনি আরো যোগ করেন, অবাক করার বিষয় আমাদের দেশে এখন পর্যন্ত দুর্ঘটনা বন্ধে কোনো গবেষণা হয়নি। এক একটা সমাধান ভাবলেই সেটা প্রয়োগ করা যায় না। বৈজ্ঞানিক নিয়ম হচ্ছে— ল্যাবে তৈরি সমাধান ছোট ছোট পাইলট সার্ভে করতে হবে। সেগুলো সফল হলে তা বড় পরিসরে প্রয়োগ করতে হবে।

এও সব নয়। এক জায়গার সমাধান অন্য জায়গায় প্রয়োগ করা যায় না। প্রতিটা এলাকার সমস্যার ধরন আলাদা, সমাধান আলাদা। এগুলোর জন্য প্রতিটি সমস্যাকে আলাদা গুরুত্ব দিতে হবে। আমাদের দেশের স্থানীয় সরকার ব্যবস্থাও শক্তিশালী নয়। তা যদি হতো, প্রতিটি এলাকার সমাধান নিজ এলাকা থেকে বের হতো।

উপরে