রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে হিজড়াদের শপথ রাস্তাঘাটে চাঁদাবাজি নয়

প্রকাশের সময়: ৮:০৭ অপরাহ্ণ - শুক্রবার | আগস্ট ১০, ২০১৮
কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি
হিজড়া হিসেবে পরিচিত তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরা আর পার্ক ও রাস্তাঘাটে চাঁদাবাজি না করার অঙ্গীকার করেছেন। তবে শিশুর জন্মের পর বাড়ি থেকে বকশিস গ্রহণে বিষয়টি তারা আপাতত ছাড়তে পারবেন না।  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের রাজধানীর তেজগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে শুক্রবার দেখা করেন হিজড়াদের বিভিন্ন দলের নেতারা। এ সময় তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে এই অঙ্গীকার করেন। অপরদিকে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন, ভারতে গ্রেপ্তার হওয়া বাংলাদেশের সন্ত্রাসী বোমারু মিজানকে দেশে ফিরিয়ে আনা হবে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানান, তারা (হিজড়া) আমার কাছে শপথ নিয়েছে। তারা পার্ক ও রাস্তাঘাটে চাঁদাবাজি করবে না। তিনি বলেন, তাদের জন্য আমরা একটা রূপরেখা করেছি। তারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে চাইলে আমাদের পক্ষ থেকে সবধরনের সহযোগিতা করা হবে। তবে কোনো বাসায় নতুন সন্তান জন্ম নিলে তারা আগের মতোই বকশিস গ্রহণ করবেন বলে জানান হিজড়া নেতারা। তবে এ ক্ষেত্রে জোর জবরদস্তি করা হবে না বলে অঙ্গীকার করেন তারা।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, হিজড়ারা আমাদেরই সন্তান। তারা কীভাবে চলবে, কীভাবে ভবিষ্যতে নিজের পায়ে দাঁড়িয়ে নিজের আয় নিজেই করে একটা ভালো মানুষ, উপযুক্ত নাগরিকের মতন চলবে, সে জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটি রূপরেখা আমাদেরকে দিয়েছেন। সে অনুযায়ী কাজও হচ্ছে। আমাদের হিজড়া সম্প্রদায়, তারাও এ বিষয়ে একাত্মতা প্রকাশ করে আমাদেরকে সহযোগিতা করছেন।
তিনি আরও বলেন, আমরা আগে দেখেছি তাদের জীবিকার জন্য নানা ধরনের পন্থা অবলম্বন করতেন। আজকে দেখেছেন এই সমস্ত পন্থা ছেড়ে তারা একটা সুন্দর জীবন যাপনের জন্য দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।
হিজড়াদের সঙ্গে বৈঠকে কী নিয়ে আলোচনা হয়েছে, সেটাও জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, আমি বলেছি, আপনারা কে কী করতে চান, আপানারা জানাবেন যাতে করে আমরা এনজিওদের মাধ্যমে আপনাদের সেই জীবিকার সন্ধানে সহযোগিতা করতে পারি।
মারজান নামে একজন হিজড়াদের মূল ধারায় নিয়ে আসতে কাজ করছেন এবং তার উদ্যোগেই এই বৈঠক হয়। আর  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাকেও ধন্যবাদ জানান।
সরকারের পক্ষ থেকে হিজড়াদের জন্য কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়েছে কি না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এটার জন্য একটা ডিফারেন্ট মিনিস্ট্রি আছে। তারা কাজ করছে। আমার সম্পূর্ণ জানা নেই কোন পর্যন্ত এগিয়েছে। আমি সেটাও বলেছি যেটা আইনশৃঙ্খলার জন্য প্রয়োজন। তারা আমাদেরকে বলে গেলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষার জন্য তারা আমাদেরকে সহযোগিতা করবেন। তাদের বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে উপস্থিতি দেখতে পাচ্ছি। আমি সেই ব্যাপারটিরই কথা বলছিলাম। তারাও এ ব্যাপারে একমত হয়ে আমাদের সঙ্গে সহযোগিতার কথা বলেছেন।
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে