সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

চিকিৎসা না করালে প্যারালাইজড হয়ে যেতে পারি, আইনজীবীদের খালেদা

প্রকাশের সময়: ৯:১৬ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

আমার অবস্থা খুব খারাপ। আগে চিকিৎসা দিয়ে আমাকে বাঁচানোর চেষ্টা করুন, তারপর বিচার করুন। আমার শরীর শুকিয়ে যাচ্ছে। সরকারকে বলুন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিশেষায়িত কোনো হাসপাতাল কিংবা ইউনাইটেড হাসপাতালে আমাকে ভর্তি করতে। তা না হলে আমার হাত, পা প্যারালাইজড হয়ে যেতে পারে।

কারাবন্দী বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সঙ্গে শুক্রবার বিকালে তার চার আইনজীবী কারাগারে দেখা করতে গেলে তিনি এসব কথা বলেন।

শুক্রবার বিকাল ৫টার দিকে রাজধানীর নাজিম উদ্দিন রোডের পুরানো কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রবেশ করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, এজে মোহাম্মদ আলী ও আব্দুর রেজ্জাক খান। প্রায় এক ঘণ্টা সাক্ষাৎ শেষে সন্ধ্যা ৬টার দিকে বেরিয়ে তারা সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন আরও বলেন, ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) আমাদের বলেছেন, তিনি ট্রায়াল ফেস করতে প্রস্তুত, কিন্তু আগে তার চিকিৎসা দরকার। সরকারকে আমার চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে বলেন। তারপর তারা বিচার করুক। কারণ আমার শরীরের অবস্থা খুব খারাপ। কারাগারে তাকে তিলে তিলে ধ্বংস করা হচ্ছে বলেও ম্যাডাম (খালেদা) আমাদের কাছে অভিযোগ করেছেন।

জয়নুল আবেদীন বলেন, তার বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার আইনগত দিক দেখা যাবে, আগে তার চিকিৎসা করা দরকার। চিকিৎসার ব্যবস্থা না করা হলে তিনি পুরোপুরি প্যারালাইসড হয়ে যেতে পারেন। এজন্য দেশবাসীর কাছে খালেদা জিয়া দোয়া চেয়েছেন বলেও জানান তিনি।

খালেদা জিয়ার এই আইনজীবী আরও বলেন, খালেদা জিয়ার বাম চোখ ফুলে গেছে, চোখে ঝাঁপসা দেখছেন। এছাড়া বাম হাত নাড়াচড়া করতে পারছেন না। কারা কর্তৃপক্ষকে তিনি অসুস্থতার কথা জানিয়েছেন। কিন্তু কারাগারে তার চিকিৎসা সম্ভব নয়। তাকে অবিলম্বে বিশেষায়িত কোনো হাসপাতাল- ইউনাইটেড বা অ্যাপোলো হাসপাতালে ভর্তি করার দরকার যদি তাকে বাঁচিয়ে রাখতে হয়।

জয়নাল আবেদীন আরও বলেন, ম্যাডাম আমাদের পরিষ্কারভাবে বলেছেন- এ মামলা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত হয়ে করা হয়েছে এবং বিচার করা হচ্ছে।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে