শনিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ | ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ঘুমের সমস্যা এড়াতে…

প্রকাশের সময়: ৬:০৯ অপরাহ্ণ - রবিবার | সেপ্টেম্বর ৯, ২০১৮

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

দিনে ঘুমাবেন না

অনেকেই দিনে ঘুমান। ফলে রাতে ঘুম আসে না। এ জন্য দিনে যদি খুব ঘুম পায় সে ক্ষেত্রে ২০ মিনিটের বেশি ঘুমানো যাবে না।

অ্যালার্ম দিন

নির্দিষ্ট সময়ে ঘুমাতে যাওয়াটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তবে তা অনেকেই ভুলে যান। সে কারণে ঘুম থেকে ওঠার মতো ঘুমাতে যাওয়ার জন্যও অ্যালার্ম ব্যবহার করতে পারেন।

মাছ খান

গবেষণায় দেখা গেছে, তৈলাক্ত মাছে পাওয়া ওমেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড ঘুম আনতে সহায়তা করে। অন্যদিকে বিভিন্ন গুরুপাক খাবার হজমে সমস্যা করে এবং ঘুমাতে ব্যাঘাত তৈরি করে। তাই সেসব খাবার বাদ দিয়ে মাছ খান।

মোবাইল-টিভি বন্ধ করুন

অনেকেই ঘুমানোর আগে মোবাইল ফোন, ট্যাব বা টিভি দেখেন। এসব ডিভাইস থেকে বিচ্ছুরিত নীল আলো ঘুমের ব্যাঘাত ঘটায়। তাই ঘুমাতে যাওয়ার কমপক্ষে এক ঘণ্টা আগে এসব ডিভাইস বন্ধ করুন।

শারীরিক পরিশ্রম করুন

যারা নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম করে, তাদের ঘুম ভালো হয়। তাই ভালো ঘুমের জন্য নিয়মিত শারীরিক পরিশ্রম বা ব্যায়াম করা দরকার। তবে ঠিক ঘুমের আগে নয়, দিনের বেলা বা ঘুমের কয়েক ঘণ্টা আগে করলেই চলবে।

ক্যাফেইন ও ধূমপান নয়

ক্যাফেইন জাতীয় খাবার ও নিকোটিন ঘুম তাড়িয়ে দেয়। তাই ঘুমের অন্তত পাঁচ ঘণ্টা আগে শেষ চা বা কফিটুকু পান করতে হবে। এমনকি যাদের রাতে ভালো ঘুম হয় না, তাদের উচিত দুপুরের খাবারের পর কফি বা চা না পান করা। পাশাপাশি ধূমপানও পরিহার করতে হবে। কারণ নিকোটিন মস্তিষ্কে ঘুমের সমস্যা তৈরি করে।

বই পড়ুন

ঘুমের আগে বই পড়লে তা খুবই কার্যকরভাবে ঘুম আনতে পারে। তাই ঘুম না এলে বিছানায় শুয়ে ঘুমের জন্য চেষ্টা করার বদলে একটি বই নিয়ে পড়তে থাকুন।

অল্প খান

ঘুমের আগে বেশি খাবার খেলে তা ঘুমের সমস্যা তৈরি করে। এ জন্য সন্ধ্যাতেই খাবার খেয়ে নিন। পরে খাবার খেতে চাইলে হালকা খাবার খান।

বিছানা ঠিক করুন

বিছানাতে অন্য কোনো কাজ করবেন না। শুধু ঘুমের জন্যই বিছানা বরাদ্দ রাখুন। অন্য সব কাজ শেষ করে তবেই ঘুমের জন্য বিছানায় যান।

উপরে