বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

অখেলোয়াড়সুলভ আচরণের জন্য সেরেনাকে জরিমানা

প্রকাশের সময়: ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ - সোমবার | সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮

 

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

সর্বাধিক গ্রান্ড স্লাম জেতা মার্গারেট কোর্টের রেকর্ড ছোঁয়ার সুযোগ হলো না মার্কিন তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের।  উল্টো অখেলোয়াড়সুলভ আচরণের জন্য শাস্তি পেয়েছেন ২৩টি গ্র্যান্ড স্লাম জেতা সেরেনা। ইউএস ওপেনের ফাইনালে আম্পায়ারকে ‘চোর’ ও ‘মিথ্যুক’ বলায় এবং কোড লঙ্ঘনের দায়ে জরিমানা গুনতে হচ্ছে সেরেনা উইলিয়ামসকে।

এ ব্যাপারে ইউনাইটেড স্টেটস টেনিস অ্যাসোসিয়েশন (ইউএসটিএ) সেরেনাকে ১৭ হাজার ডলার জরিমানা করেছে। ইউএস ওপেনের রানার্সআপ হওয়ায় ১.৮৫ মিলিয়ন ডলার প্রাইজমানি জিতেছেন সেরেনা। প্রাইজমানি থেকে জরিমানার অর্থ কেটে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ইউএসটিএ।

এর আগে, শনিবার ইউএস ওপেনের ফাইনালে ২৩ গ্র্যান্ড স্লামজয়ী সেরেনাকে হারিয়েছেন জাপানের নাওমি ওসাকা। প্রথম জাপানি হিসেবে নাওমি জিতেছেন কোনো গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা। ৬-২, ৬-৪ গেমে সরাসরি হেরেছেন সেরেনা। এদিন খেলা চলাকালেই রেফারি কার্লোস রামোসের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ আনেন সেরেনা। ঝামেলার শুরু সেরেনাকে দেয়া তার কোচ প্যাট্রিক মৌরাতুগলুর নির্দেশনার সূত্র ধরে। অন ফিল্ডে কোচের থেকে ‘পরামর্শ’ নেওয়ার অভিযোগ উঠে সেরেনার বিরুদ্ধে। প্রথমে তাকে সতর্ক করা হয়। পুনরায় একই কাজ করায় পেনাল্টি পয়েন্ট দেওয়া হয় নাওমিকে।

এরপর মেজাজ হারিয়ে আম্পায়ারকে ধুয়ে দেন সেরেনা। তাকে ‘চোর’ ও ‘মিথ্যুক’ বলে সম্বোধন করেন। এছাড়া আম্পায়ারের বিরুদ্ধে লিঙ্গবৈষ্যমের অভিযোগ তুলেন সেরেনা।

এদিকে সেরেনা বলেছেন, তিনি কখনই জেতার জন্য প্রতারণার আশ্রয় নেননি। ভুয়া অভিযোগ তোলার জন্য রেফারিকে ক্ষমাও চাইতে বলেন তিনি। সেই বাদানুবাদে জড়িয়ে ক্ষুব্ধ সেরেনা পরে খেলায় মনোনিবেশ করতেও পারেননি। তার কিছু ভুলেও ও নিজ দক্ষতায় এগিয়ে যান নাওমি ওসাকা। খেলার সময়কার এ তর্ক-বিতর্কের রেশ ছিল খেলা শেষেও। কোর্ট ছাড়ার সময় রেফারির সঙ্গে হাত মেলাতেও অস্বীকৃতি জানান সেরেনা। তবে নাওমিকে তিনি অভিনন্দন জানিয়েছেন।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে