বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ | ১১ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

কীভাবে পাবেন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট

প্রকাশের সময়: ১০:০১ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার | সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

দেশের বাইরে যেতে হলে, ইমিগ্রেশন কিংবা বিদেশে অবস্থানকালীন সময়ে ওয়ার্ক পারমিটের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ আপনার আছে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট চাইতে পারে। তখন কী করবেন? কীভাবে পাবেন এটি? এ বিষয় সম্পর্কে অনেকেই জানেন না। কিংবা না জেনে এখানে সেখানে গিয়ে গলদঘর্ম হচ্ছেন অনেকে। সব টেনশন বাদ দিয়ে চলে যান ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ওয়ান স্টপ সার্ভিসে। যেখানে আবেদন করার এক সপ্তাহের মধ্যে পেয়ে যাবেন আপনার কাঙ্ক্ষিত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।

কোথায় যাবেন
ডিএমপির সদর দপ্তরে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট সেন্টারে সবসময় প্রস্তুত আছে একঝাঁক পুলিশ সদস্য। যারা এ সংক্রান্তে কাজগুলো আন্তরিকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকায় বসবাসরত নাগরিকগণ পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পেতে সরাসরি যোগাযোগ করুন। ডিএমপি সদর দপ্তর, কক্ষ নং-১০৯, হেল্প লাইনঃ- ০১১৯১-০০৬৬৪৪ এবং ০২-৭১২৪০০০।

প্রদেয় সেবা সমূহ
১. ঢাকা মেট্রোপলিটন থানা এলাকার নাগরিকগণের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ০১ (এক) সপ্তাহের মধ্যে প্রদান করা হয়।

২. পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট ‘পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়’ কর্তৃক সত্যায়িত করে দেওয়া হয়।

৩. পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রার্থীর চাহিদামতে কুরিয়ার সার্ভিস এর মাধ্যমে নির্দিষ্ট সময়ে বাসায় পৌঁছে দেওয়া হয়।

৪. শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিন সকাল ০৯ টা হইতে বিকাল ০৫ টা পর্যন্ত সেবা প্রদান করা হয়।

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট নিতে হলে যা করতে হবে
ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার বরাবর সাদা কাগজে আবেদন পত্রের সাথে যা যা লাগবে-
পাসপোর্টের সত্যায়িত ফটোকপি (অবশ্যই ১ম শ্রেণীর সরকারি গেজেটেড কর্মকর্তা দ্বারা সত্যায়িত হতে হবে), বাংলাদেশ ব্যাংক/সোনালী ব্যাংকের যেকোনো শাখা হতে ৫০০/- (পাঁচশত) টাকা মুল্যমানের ট্রেজারি চালান- চালানের কোড নাম্বার (১-২২০১-০০০১-২৬৮১), পাসাপোর্টের স্থায়ী কিংবা অস্থায়ী ঠিকানা যেকোনো একটি অবশ্যই ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার অভ্যন্তরে হতে হবে এবং অবশ্যই ওই ঠিকানায় অবস্থান করতে হবে।

যারা বিদেশে অবস্থান করছেন তাদের পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য যে দেশে অবস্থান করছেন সে দেশের বাংলাদেশ দূতাবাস/হাইকমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্তৃক পাসপোর্টের ফটোকপি সত্যায়িত থাকতে হবে।

মেশিন রিডেবল পাসপোর্টে (এম.আর.পি) যদি ঠিকানা উল্লেখ না থাকে সেক্ষেত্রে পাসপোর্টে যে স্থায়ী/বর্তমান ঠিকানা ব্যবহার করা হয়েছে তার প্রমাণ হিসেবে স্থানীয় ওয়ার্ড কমিশনারের সনদপত্র/ জাতীয় পরিচয়পত্র/ জন্ম নিবন্ধন সনদপত্রের ফটোকপি ১ম শ্রেণির সরকারি গেজেটেড কর্মকর্তা দ্বারা সত্যায়িত করে দখিল করতে হবে।

স্পেনে যাওয়ার জন্য যারা পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার আবেদন করবেন তারা সচিব, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় বরাবর উল্লেখিত কাগজপত্রসহ তাদের আবেদন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের বহিরাগমন শাখা-০৩ এ দাখিল করতে হবে।

আবেদনপত্র জমা দেওয়ার পর প্রদত্ত টোকেনটি ডেলিভারির দিন অবশ্যই নিয়ে আসতে হবে।
আবেদন পত্র জমা দেওয়ার এক সপ্তাহ পর অত্র অফিস হতে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট প্রদান করা হবে।

যাদের পাসপোর্টে ঢাকা মেট্রোপলিটন এলাকার বাইরের ঠিকানা দেওয়া আছে তাদের সংশ্লিষ্ট জেলার পুলিশ সুপার, জেলা বিশেষ শাখা বরাবর উল্লেখিত কাগজপত্রসহ আবেদন করতে হবে।

আবেদনের নমুনা কপি-

বরাবর
পুলিশ কমিশনার
ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, ঢাকা।

বিষয়ঃ পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পাওয়ার জন্য আবেদন।

জনাব
বিনীত নিবেদন এই যে, আমি নিম্নস্বাক্ষরকারীর এই মর্মে আবেদন করিতেছি যে, আমি/ আমার … … … … … … … … … … এর বিদেশ যাওয়া/ স্থায়ীভাবে বসবাস করার … … … … … … … … … … জন্য পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের প্রয়োজন। আমি/আমার … … … … … … … … … … এর পাসপোর্ট অনুযায়ী বৃত্তান্ত নিম্নরূপ নাম… … … … … … … … … … পিতা/স্বামী … … … … … … … … … … ঠিকানা … … … … … … … … … …পাসপোর্টের নম্বর… … … … … … … … … ইস্যুর তারিখ… … … … … … … … … … মেয়াদ উর্ত্তীণের তারিখ… … … … … … … … … … ..স্থান … … … … … … …

অতএব, মহোদয়ের নিকট আবেদন এই যে, আমি যাতে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স পেতে পারি তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করতে মর্জি হয়।

তারিখ-

সংযুক্ত:
১। পাসপোর্টের ফটোকপি (সত্যায়িত)
২। ব্যাংক চালানের মূলকপি।

বিনীত নিবেদক
… … … … … …
ঠিকানা:-… … …. …
ফোন নং…. … … … .

(সংগৃহিত)

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com

উপরে