সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ | ৩রা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

সম্পদ দানের বিপরীতে কৃপণ ব্যক্তির করণীয় কী?

প্রকাশের সময়: ৬:০১ পূর্বাহ্ণ - বুধবার | নভেম্বর ১৪, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

কৃপণতা, কাপুরুষতা ও ইবাদতে অনিহা কোনো ব্যক্তির গুণ হতে পারে না। বরং যে ব্যক্তি কৃপণতা না করে সম্পদ দান করে, কাপুরুষতা না দেখিয়ৈ বরং আল্লাহর রাস্তায় যে কোনো বিষয়ে লড়তে পারে আবার ইবাদত থেকে বিরত না থেকে নিরলস ইবাদতে নিজেদের আত্মনিয়োগ করে তারাই প্রকৃত মুমিন।

একান্তই যে সব মুমিন দানের বেলায় কৃপণ, ইবাদতে অনাগ্রহী, অন্যায়ের মোকাবেলায় লড়তে অনিচ্ছুক; তাদের করণীয় কী? হাদিসে পাকে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম তাদের জন্য নসিহত পেশ করেছেন। হাদিসের বর্ণনায় এসেছে-

– রাত জেগে ইবাদত করতে অক্ষম হয়ে পড়ে;
– কৃপণতার কারণে সম্পদ দান করতে পারে না;
– কাপুরুষতার কারণে (ইসলামের) শত্রুর বিরুদ্ধে জেহাদ করতে অক্ষম হয়,
– সে যেন বেশি বেশি আল্লাহ তাআলার জিকির করে।‘

উল্লেখ্য যে, শুধু আল্লাহ আল্লাহ তাসবিহ-ই আল্লাহর জিকির নয়; বরং ইসলামের অন্যান্য নির্দেশ পালনে নিজেকে বেশি বেশি নিয়োজিত করে। তা হতে পারে এমন-

যদি রাত জেগে ইবাদতে অক্ষম হয় তবে সে দিনের বেলায় ফরজ নামাজ আদায়ের সময় নফল নামাজে নিজেকে আত্মনিয়োগ করবে বা অন্যান্য বিধানের প্রতি যত্নবান হবে।

এভাবে নিজেকে আল্লাহর বিধি-বিধান বাস্তবায়নে নিয়োজিত করার মাধ্যমে জিকির-আজকার করা জরুরি।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে বেশি বেশি জিকির-আজকার, তাসবিহ-তাহলিল পালন করার তাওফিক দান করুন। ইবাদতে অনিহা, কৃপণতা ও কাপুরুষতা থেকে হেফাজত করুন। আমিন।

উপরে