রবিবার, ২১ জুলাই, ২০১৯ | ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয় পেয়ে বাংলাদেশকে টপকে গেল শ্রীলঙ্কা

প্রকাশের সময়: ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ - শনিবার | জুন ২২, ২০১৯

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর এক জয় পেয়ে পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নম্বরে উঠে গেলো শ্রীলঙ্কা। একই সাথে এক পয়েন্ট বেশি পাওয়ায় পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশকে টপকে গেল লঙ্কানরা। বলা যায় যে, রীতিমত সেমিফাইনালের হিসাব নিকাশে চলে এসেছে ৯৬’র এই বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা!

এবারের বিশ্বকাপ আসরের ২৭তম ম্যাচে লিডসের হেডিংলিতে শুক্রবার ২০ রানে জিতেছে দিমুথ করুনারত্নের দল। ২৩৩ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ৪৭ ওভারে ২১২ রানে থামে ইংল্যান্ড। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে লঙ্কানরা তোলে ২৩২ রান। ২৩৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ৪৭ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে ইংলিশরা তোলে ২১২ রান।

লঙ্কান ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে দলীয় মাত্র ৩ রানের মাথায় জোফরা আর্চারের বলে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নে। আউট হওয়ার আগে করুণারত্নে করেন মাত্র ১ রান। পরের ওভারে ক্রিস ওকসের ২য় বলে বলে মঈন আলীর হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান কুশল পেরেরা। পেরেরা করেন মাত্র ২ রান।

লঙ্কানদের ব্যাটিং বিপর্যয়ের পর দলের হাল ধরেন আভিস্কা ফার্নান্দো। মাত্র ৩৯ বলে ৪১ রান করে যখন ফেরেন দলীয় স্কোরবোর্ডে তখন রান সংখ্যা ১২ ওভার ৫ বলে ৬২ রান। ইনিংসের ৩০তম ওভারে আদিল রশিদ পর পর দুই বলে ফিরিয়ে দেন ৪৬ রান করা কুশল মেন্ডিস এবং জীবন মেন্ডিসকে। দলীয় ১৩৫ রানের মাথায় পঞ্চম উইকেট হারায় লঙ্কানরা। এরপর রানের চাকা ঘুরিয়ে ব্যক্তিগত ২৯ রানে ফেরেন ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা। দ্রুতই বিদায় নেন থিসারা পেরেরা (২)। ইসুরু উদানা (৬), লাসিথ মালিঙ্গারা (১) বিদায় নিলেও উইকেটের এক প্রান্ত ধরে রাখেন সাবেক দলপতি অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। ১১৫ বলে পাঁচটি চার আর একটি ছক্কায় করেন অপরাজিত ৮৫ রান।

ইংলিশদের পক্ষে হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগিয়েছিলেন স্পিনার আদিল রশিদ। ১০ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে তিনি নেন দুটি উইকেট। মার্ক উড ৮ ওভারে ৪০ রান দিয়ে নেন তিনটি উইকেট। জোফরা আর্চার ১০ ওভারে ৫২ রান খরচায় পান তিনটি উইকেট। ক্রিস ওকস ৫ ওভারে ২২ রান দিয়ে পান একটি উইকেট।

২৩৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টো ০ রানে সাজঘরের পথ ধরেন। আরেক ওপেনার জেমস ভিঞ্চ করেন ১৪ রান। তিন নম্বরে নামা জো রুট ৮৯ বলে করেন ৫৭ রান। দলপতি ইয়ন মরগানের ব্যাট থেকে আসে ২১ রান। জস বাটলার ১০, মঈন আলি ১৬, ক্রিস ওকস ২, আদিল রশিদ ১, জোফরা আর্চার ৩ রানে বিদায় নেন।

পরিস্থিতি সামলে খেলতে থাকা বেন স্টোকস অপরাজিত থাকেন ৮২ রানে। তার ৮৯ বলের ইনিংসে ছিল ৭টি চার আর ৪টি ছক্কা। মার্ক উড ০ রানে আউট হওয়ার মধ্যদিয়ে ইংলিশদের ইনিংসের ইতি ঘটে। ৪৭ ওভারে অলআউট হওয়ার আগে স্বাগতিকদের ইনিংস থামে ২১২ রানের মাথায়।

লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গা ১০ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে নেন চারটি উইকেট। ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ৮ ওভারে ৩২ রান দিয়ে পান তিনটি উইকেট। ইসুরু উদানা ৮ ওভারে ৪১ রানের বিনিময়ে তুলে নেন দুটি উইকেট। নুয়ান প্রদীপ ১০ ওভারে ৩৮ রান খরচায় তুলে নেন একটি উইকেট।

বিশ্বকাপের ২৭ নম্বর ম্যাচটি শেষে টেবিলের শীর্ষে ৬ ম্যাচে ১০ পয়েন্ট পাওয়া ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া। ৫ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে গতবারের ফাইনালিস্ট নিউজিল্যান্ড। হারলেও তিনেই রইল ইয়ন মরগানের ইংল্যান্ড। ইংলিশরা ৬ ম্যাচে তুলে নিয়েছে ৮ পয়েন্ট। চারে থাকা ভারত ৪ ম্যাচে পেয়েছে ৭ পয়েন্ট। শ্রীলঙ্কা ৬ ম্যাচে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচে উঠে আসলো। ৬ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশ নেমে গেল ছয় নম্বরে। সাতে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৫ ম্যাচে সংগ্রহ ৩ পয়েন্ট। দক্ষিণ আফ্রিকা ৬ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে আটে। পাকিস্তান ৫ ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে নয়ে আর ৫ ম্যাচের ৫টিতেই হারা আফগানিস্তান তলানিতে অবস্থান করছে।

উপরে