রবিবার, ২১ জুলাই, ২০১৯ | ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ডায়াবেটিস মোকাবেলায় বিশেষজ্ঞদের নতুন ভাবনা

প্রকাশের সময়: ৬:৫৪ অপরাহ্ণ - শনিবার | জুন ২৯, ২০১৯

 

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

বিশ্বে ক্রমবর্ধমান হারে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। আর ক্রমবর্ধমান হারে বৃদ্ধি পাওয়া এই রোগীদের জন্য ইনসুলিন যোগানের সঙ্কট সৃষ্টি হবে বলে একটি নতুন গবেষণায় ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা ৪০ কোটি ৬০ লাখ। আর ২০৩০ সালে তা হবে ৫১ কোটি ১১ লাখ। আর তাই এই রোগকে মোকাবেলা করতে বিশেষজ্ঞরা ভবছেন নতুন করে।

ডয়েচে ভেলেতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সুসানে রিপে-র জীবনে অতীত ও ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনো নিশ্চয়তা নেই। পেশায় তিনি ডাক্তারের চেম্বারে সাহায্যকারী। তিনি ক্রোন রোগে ভুগছেন। ওষুধ খাবার আগে তার ওজন ছিল ৫৫ কিলোগ্রাম। এখন ২০ কিলো ওজন বেড়ে গেছে। ফলে ৩ সাইজ বেশি মাপের জামাকাপড় পরতে হচ্ছে। ফলে মন বেজায় খারাপ। বলছেন, তার মুখ গোল হয়ে ফুলে গেছে। আগে তাকে মোটেই এমন দেখতে ছিল না।

২০১১ সালে তার ক্রোন রোগ ধরা পড়ে। অন্ত্রনালীর এই সমস্যার মোকাবিলা করতে তাকে কর্টিসন ওষুধ খেতে হয়। তাতে লাভ হয়, প্রদাহ বা জ্বালা দূর হয় বটে, কিন্তু সেইসঙ্গে ওজন বাড়তে থাকে। কয়েক মাস পর তিনি বুঝতে পারেন, কর্টিসনের কারণেই এমনটা হচ্ছে।

বাতরোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে গাব্রিয়েলা রিমেকাস্টেন এই সমস্যা সম্পর্কে সচেতন। রিউম্যাটিক ইনফ্লেমেশন বা প্রদাহের দ্রুত মোকাবিলা করতে হলে তিনি কর্টিসন প্রয়োগ না করে পারেন না। তবে তিনি ওষুধের মাত্রা যতটা সম্ভব কম রাখার চেষ্টা করেন। রিমেকাস্টেন বলেন, প্রদাহের জন্য সব সময়ে শক্তির প্রয়োজন হয়। এখন সেই প্রদাহ কমাতে বা পুরোপুরি দূর করলে মনে রাখতে হবে, যে আগের পরিমাণে খাবার খেলে আপনার ওজন বেড়ে যাবে। কারণ তখন আপনার তত শক্তির প্রয়োজন হয় না।

উপরে