বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯ | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

গ্রিনল্যান্ডের বরফ গলে বইছে নদী

প্রকাশের সময়: ৪:৩০ অপরাহ্ণ - শনিবার | আগস্ট ৩, ২০১৯

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

বিজ্ঞানীরা আগেই শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন। এবার সেটাই সত্য হলো। তীব্র গরমে ইউরোপকে পুড়িয়ে তপ্ত করে তাপপ্রবাহ এগোচ্ছিল গ্রিনল্যান্ডের দিকে।

বিজ্ঞানীদের শঙ্কা ছিল, গলে যেতে পারে গ্রিনল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম বরফের পুরু আস্তরণ। আর সেটাই ঘটছে। গ্রিনল্যান্ডের চেনা চেহারা বদল ঘটেছে গত কয়েকদিনে।

জানা গেছে, সেখানে গলে গেছে ১২ বিলিয়ন টন বরফ। জমাট বাঁধা বরফের চাঁইয়ের বদলে গ্রিনল্যান্ডে এখন বইছে হিমবাহ গলা পানির নদী।

ওই পানির পরিমাণ ১০ বিলিয়ন টন। আগস্টের প্রথম দিনে গ্রিনল্যান্ডের তাপমাত্রা ছিল ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গলে গেছে প্রায় ১২ বিলিয়ন টন জমাট বাঁধা বরফ।

বিজ্ঞানীদের ধারণা, গ্রিনল্যান্ডের প্রায় ৬০ শতাংশ অংশে বরফ গলতে শুরু করেছে। এর আগে ২০১২ সালের জুলাই মাসে ব্যাপক পরিমাণ বরফ গলেছিল।

তবে এবারের পরিস্থিতি ২০১২ চেয়ে ভয়ঙ্কর হতে চলেছে বলে আশঙ্কা করেছিলেন আবহাওয়াবিদরা। গ্রিনল্যান্ডের অন্তত ৮০ শতাংশ জুড়ে জমা রয়েছে বিপুল পরিমাণ বরফ। তার সম্পূর্ণটা গলে গেলে সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা গড়ে ৭ মিটার বেড়ে যাবে।

শুধু তাই নয়, তলিয়ে যাবে ভূ-খণ্ডের একটা বিরাট অংশ। চলতি বছর সবচেয়ে বেশি পরিমাণ বরফ গলেছে ৩১ জুলাই। জুলাই মাস ধরে গ্রিনল্যান্ডের হিমবাহ গলে আটলান্টিক মহাসাগরে জমা হয়েছে একশ ৯৭ বিলিয়ন টন পানি। ফলে পানির স্তর বৃদ্ধি পেতে পারে প্রায় শূন্য দশমিক দুই ইঞ্চি।

উপরে