সোমবার, ০৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ | ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

অনলাইনেও সেবা পাবেন ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীরা

প্রকাশের সময়: ৬:৩৫ অপরাহ্ণ - শনিবার | আগস্ট ৩, ২০১৯

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে প্রতিটি হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী।

সরকারি হাসপাতালগুলো ছাড়াও বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতাল গুলোতে মানুষের ভর্তি হওয়ার পরিমাণ বেড়েই চলেছে। নগরীর অন্যান্য হাসপাতালের সঙ্গে পিছিয়ে নেই বারডেমের সহযোগী প্রতিষ্ঠান বিআইএইচএস জেনারেল হাসপাতালও। হাসপাতালটিতে সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে ১১০ রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ পর্যন্ত হাসপাতাল থেকে ১৩১ জন সেবা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বিআইএইচএস জেনারেল হাসপাতালে এ পর্যন্ত ২৪১ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালের কর্মী মো. শিবলুসহ দুজন রোগী ইতিমধ্যে মারা গেছেন। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীদের প্রতিনিয়ত সেবার জন্য চিকিৎসকদের ৭ সদস্যের একটি বিশেষ টিম গঠন করা হয়া হয়েছে। ওই টিমের অধীনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। সহযোগী অধ্যাপক ডা. তানভীর ইবনে ইকবাল আহমেদ (রেসপিরেটরি ও ইন্টারনাল মেডিসিন) ও সহযোগী অধ্যাপক ডা. আহমেদ সালাম মীরসহ (এন্ডো ক্রাইনোলজি) সাতজন চিকিৎসক বিশেষ টিমের হয়ে সার্বক্ষণিক কাজ করে যাচ্ছেন।

প্রতিদিনই হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্স থেকে শুরু করে প্রতিটি কর্মীই আন্তরিকতার সঙ্গে রোগীদের সেবা দিয়ে সুস্থ করে তুলছেন। রাত দিন বিরামহীনভাবেই চালিয়ে যাচ্ছে ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। অনলাইনেও সেবা দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। হাসপাতালের হটলাইন নম্বর-০১৭৮৩৯১৭১৫১ ফোন করেও ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত রোগীরা সেবা পেতে পারেন।

এছাড়া ও হাসপাতালে প্রতিদিন পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার কাজ প্রতিদিন চালিয়ে যাচ্ছে পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা। রোগীরা পৃথক মশারি দেয়া হচ্ছে, চিকিৎসা সেবা দিতে লোকবলও বাড়ানো হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ডেঙ্গু পরীক্ষা করার পাশাপাশি অনলাইনেও নানা ধরনের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। চিকিৎসকরা বলছেন ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দিলেই রোগী ভালো হয়ে যায়।

হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব) আব্দুল মজিদ ভূইঁয়া বলেন, ডেঙ্গু রোগী আসলেই বিশেষভাবে সেবা দেয়া হচ্ছে। সুষ্ঠভাবে সেবা দিতে একটি কমিটিও করে দেয়া হয়েছে। রাত দিন আমাদের ডাক্তার চিকিৎসকরা রোগী সুস্থ্ করতে বিরামহীনভাবে কাজ করছেন।

উপরে