বুধবার, ২১ আগস্ট, ২০১৯ | ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

নয় বছর পর অধিনায়ক হিসেবেই ফিরলেন লর্ডসে

প্রকাশের সময়: ৬:১৭ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার | আগস্ট ১৩, ২০১৯

currentnews

ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে খেলা যেকোনো খেলোয়াড়ের জন্যই স্বপ্নের। আর যদি নিজের টেস্ট অভিষেকটাই হয় লর্ডসে, তাহলে তো সোনায় সোহাগা! ঠিক যেমন ৯ বছর আগে লর্ডসেই টেস্ট অভিষেক হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের বর্তমান অধিনায়ক টিম পেইন ও সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথের।

লর্ডসে অভিষেক হওয়ার পর নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন স্মিথ। কিন্তু সে অর্থে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি পেইন। যে কারণে অভিষেকের ৯ বছর পরেও তার নামের পাশে টেস্ট সংখ্যা মাত্র ২২টি। তবে পেইন সফল অন্য এক জায়গায়। প্রায় এক বছরের বেশি সময় ধরে তিনিই যে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট অধিনায়ক।

গত বছরের মার্চে বল টেম্পারিং কাণ্ডে স্মিথ নিষিদ্ধ হলে, অধিনায়কত্ব দেয়া হয় পেইনের কাঁধে। যা তিনি বয়ে চলেছেন চলতি অ্যাশেজ পর্যন্ত। আর এ সুবাদেই দীর্ঘ ৯ বছর পর লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ডে খেলতে নামছেন অধিনায়ক হিসেবে। তার সঙ্গে লর্ডসে অভিষেক হওয়া স্মিথ আরও দুইবার খেলেছেন এ মাঠে। কিন্তু পেইন অভিষেকের পর এবারই নামবেন প্রথমবার।

আগামীকাল (বুধবার) চলতি অ্যাশেজের দ্বিতীয় টেস্টে মাঠে নামবে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া। এ ম্যাচের মধ্য দিয়েই নয় বছর পর লর্ডসে খেলতে নামবেন অস্ট্রেলিয়ার বর্তমান অধিনায়ক পেইন, তাও অধিনায়কের ব্লেজার গায়ে দিয়ে। এ ম্যাচ তথা এ সিরিজই হয়তো ঠিক করে দেবে পেইনের অধিনায়কত্বের ভবিষ্যৎ।

এজবাস্টনে সিরিজের প্রথম টেস্টে ২৫১ রানের বড় জয় পাওয়ায় বর্তমানে খানিক সুবিধাজনক অবস্থানেই রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। লর্ডসেও জয় পেলে তারা ৫ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে যাবে ২-০ ব্যবধানে। যা তাদের সিরিজ জয়ের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেবে অনেকখানি।

দীর্ঘ নয় বছর পর ঐতিহাসিক লর্ডসে ফিরে আবেগাপ্লুত পেইন। তিনি বলেন, ‘লর্ডসে আমি বেশ কয়েকবারই এসেছি। কিন্তু প্রথমবারের স্মৃতিটা অন্য সব বারের চেয়ে আলাদা। এটা এমন একটা মাঠ, যেখানে আপনি হয়তো ১০ বা ১০০ বার আসবেন, তবু প্রতিবারই মনে হবে প্রথমবার এলেন। এটা সত্যিই খেলার জন্য দারুণ একটা জায়গা। সবাই এ মাঠে খেলা উপভোগ করে। এদিক থেকে ইংল্যান্ড খুবই সৌভাগ্যবান।’

 

উপরে