রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

ত্বকের খুঁত মুছে দেবে নারকেল তেল

প্রকাশের সময়: ৪:১৪ অপরাহ্ণ - শনিবার | আগস্ট ১৭, ২০১৯

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

যদি আমাদের মায়েদের কথাই তুলি, তাহলে বলতে হয় তারা প্রসাধনী ব্যবহারের চেয়ে ত্বকের যত্নের প্রতিই বিশেষ নজর দিতেন। ফাউন্ডেশন বা কনসিলার দিয়ে মুখের দাগ না ঢেকে কি করে প্রাকৃতিক উপকরণ দিয়ে ত্বকের খুঁত পুরোপুরি মুছে ফেলা যায়, সে প্রচেষ্টাই থাকত তাদের ভেতর। তবে একটু খতিয়ে দেখতে গেলে পাওয়া যায়, সে সময় হাতের কাছের খুব সাধারণ প্রাকৃতিক উপকরণই তারা বেছে নিতেন। ত্বকের যত্নে নারকেল তেলের উপকারিতা অনস্বীকার্য। সেই আগেকার দিন থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বকের যত্নে প্রাধান্য দেয়া হয় এ উপকরণকে।

ত্বকে নারকেল তেলের নানা ব্যবহার রয়েছে। ত্বকের পরিচ্ছন্নতায় নারকেল তেল ব্যবহার করা যায়। নারকেল তেল হালকা গরম করে স্নানের আগে ত্বকে ম্যাসাজ করে ১ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। এরপর কোমল সাবান ও তোয়ালে দিয়ে রগড়ে রগড়ে ত্বক পরিষ্কার করুন। এ উপায়ে ত্বক গভীর থেকে পরিষ্কার হবে।

যাদের ত্বক একটু বেশিই শুষ্ক, তারা এর আর্দ্রতা বজায় রাখতে নারকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। নারকেল তেল ত্বকের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এর মধ্যকার ফ্যাটি অ্যাসিড শরীরের শুষ্কতর স্থানগুলোর জন্য ভীষণ উপকারী।

ত্বকের রোদে পোড়া দাগ তুলতেও নারকেল তেলের জুড়ি নেই। রোদে অনেকক্ষণ ঘোরাঘুরি করলে ত্বকে ট্যান পড়ে, খসখসে হয় এবং কখনোবা চুলকায়। তখন নারকেল তেল মুখে ও গায়ে মাখলে আরাম হয়, ত্বকও ভালো থাকে। সেক্ষেত্রে অর্গানিক উপায়ে তৈরি নারকেল তেলই সবচেয়ে বেশি উপকারী।

আফটার শেভ লোশন হিসেবেও নারকেল তেল ব্যবহার করা যায়। এতে রয়েছে এক ধরনের অ্যান্টিসেপ্টিক। শেভ করার পর নারকেল তেল ব্যবহার করলে ত্বক ঠাণ্ডা থাকে ও জ্বালা কমে। কাটা-ছেঁড়াও দ্রুত উপশম করে এটি।

তৈলাক্ত ত্বকের জন্য: ত্বক তৈলাক্ত হলে নারকেল তেল ম্যাসাজ না করাই ভালো। তবে এক্সট্রা ভার্জিন নারকেল তেল ব্যবহার করা যেতে পারে ফেসপ্যাক তৈরিতে। নিয়মিত নারকেল তেলের ব্যবহারে ত্বকের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া নষ্ট হয়, ত্বকের ক্ষতিগ্রস্ততা কমে। কয়েকটি উপায়ে ত্বকে নারকেল তেল ব্যবহার করা যায়। জেনে নিন এখানে—

নারকেল তেল প্রাকৃতিক ক্লিনজার। নারকেল তেলের সঙ্গে মধু মিশিয়ে ত্বকে ব্যবহার করলে তা গভীর থেকে ত্বককে পরিষ্কার করতে পারে। ত্বকে জমে যাওয়া ধুলো-ময়লা ও মরা কোষ সরিয়ে এবং রোমছিদ্র পরিষ্কার করে ত্বক উজ্জ্বল রাখতে ভালো ভূমিকা রাখে এটি। এ দুই উপকরণ দিয়ে তৈরি এ মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন।

নারকেল তেল ব্ল্যাক হেডস দূর করতেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। এক চা চামচ বেকিং সোডা আর তেল একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এবার ব্ল্যাকহেডসের ওপর লাগিয়ে আলতো করে ৫ মিনিট ম্যাসাজ করুন। তারপর মুখ ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুবার ঠিকমতো করলেই ব্ল্যাকহেডস নেবে বিদায়।

সূত্র: কসমোপলিটন ও প্রিভেনশন

উপরে