রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ | ৩১শে ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

টক-মিষ্টি-নোনতা পানীয়

প্রকাশের সময়: ৬:১৫ অপরাহ্ণ - মঙ্গলবার | সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

মালাই লাচ্ছি
উপকরণ: মিষ্টি দই ৪ কাপ, মালাই ১ কাপ, জাফরান আধা চা-চামচ, গোলাপজল ১ চা-চামচ, বরফকুচি ১ কাপ, পানি ২ কাপ।
প্রণালি: সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে ঠান্ডা ঠান্ডা পরিবেশন করতে হবে।

 শাহি বোরহানি
উপকরণ: ঘন টক দই ৪ কাপ, মালাই আধা কাপ, পোস্তদানাবাটা ১ টেবিল চামচ, সরিষাবাটা ১ টেবিল চামচ, বিট লবণ ১ চা-চামচ, লবণ সামান্য, চিনি ২ টেবিল চামচ বা পরিমাণমতো, পুদিনাপাতা বাটা ২ টেবিল চামচ, কাঁচা মরিচবাটা আধা চা-চামচ বা পরিমাণমতো, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, জিরা টালা গুঁড়া আধা চা-চামচ, ধনে টালা গুঁড়া ১ চা-চামচ, দইয়ের ঘনত্ব বুঝে আন্দাজমতো পানি, টক বুঝে সামান্য তেঁতুলের ক্বাথ দিন। একইভাবে ঝাল, চিনি, লবণ স্বাদমতো দিন। ১ কাপ পানির সঙ্গে সব মসলা মিশিয়ে ছেঁকে নিয়ে বাকি উপকরণের সঙ্গে মিলিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে পরিবেশন করুন।

উপকরণ: ঘন টক দই ২ কাপ, পানি ৩ কাপ, চিনি ৪ টেবিল চামচ বা পরিমাণমতো, লবণ আধা চা-চামচ বা পরিমাণমতো, বিট লবণ ১ চা-চামচ, পুদিনাপাতা ২ টেবিল চামচ, ফ্রেশ ক্রিম ৪ চা-চামচ, রসুন পেস্ট আধা চা-চামচ, জিরা টালা গুঁড়া আধা চা-চামচ।
প্রণালি: সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে বরফকুচি দিয়ে পরিবেশন করতে হবে।

 চিনিপাতা দই
উপকরণ: দুধ ২ লিটার, চিনি ৬ টেবিল চামচ বা পরিমাণমতো, পানি ঝরানো টক দই ৬ টেবিল চামচ, কেরামেল সিরাপ ২ টেবিল চামচ।
প্রণালি: দুধ, চিনি চুলায় দিয়ে অনবরত নাড়তে থাকুন। অর্ধেকের মতো করে কেরামেল সিরাপ দিয়ে কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে চুলা থেকে নামিয়েও নাড়তে হবে। অল্প গরম থাকা অবস্থায় টক দই মিলিয়ে শুকনা পাত্রে ঢেলে ঢাকনা দিয়ে গরম জায়গায় এমনভাবে রাখতে হবে, যেন নাড়াচাড়া না হয়। ৮-১০ ঘণ্টার মধ্যে দই জমে যাবে। চুলার পাশে, ওভেনে মৃদু তাপে বা ইয়োগার্ড মেকারে তাড়াতাড়ি দই জমবে।

মাঠা
উপকরণ: দুধ ২ লিটার, লেবুর রস ২ টেবিল চামচ, লবণ সামান্য
প্রণালি:দুধের সঙ্গে লেবুর রস মিলিয়ে খুব ভালো করে ফেটাতে হবে। ছানা ও ননি আলাদা হলে লবণ ও লেবুর রস মিলিয়ে পরিবেশন করুন।

উপরে