শুক্রবার, ২২ নভেম্বর, ২০১৯ | ৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

নাগপুর ম্যাচে যেসব রেকর্ডের অপেক্ষা

প্রকাশের সময়: ৮:১০ অপরাহ্ণ - শনিবার | নভেম্বর ৯, ২০১৯

 

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

প্রায় প্রতি ম্যাচই ছোট-বড় রেকর্ড কিংবা মাইলফলকের অপেক্ষায় থাকে। বাংলাদেশের বিপক্ষে ভারতের টি-২০ সিরিজের প্রথমটায় ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার মাইলফলক ছুঁয়েছন রোহিত শর্মা। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে তিনি ছুঁয়েছেন একশ’ টি-২০ খেলার রেকর্ড। এবার রোহিতের সামনে চারশ’ ছক্কার রেকর্ড অপেক্ষা করছে।

ঠিক একইভাবে যুজবেন্দ্র চাহাল উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করার পথে আছেন। লিটন দাসও আছেন ছোট একটা মাইলফলক ছোঁয়ার। তবে নাগপুরে মাইলফলক কিংবা রেকর্ড নয় জয় পেতে মুখিয়ে আছে দু’দল। প্রথম ম্যাচে দিল্লিতে জয় তুলে নিয়ে বাংলাদেশ বুঝিয়ে দিয়েছে হেলায় ফেলানোর দল তারা নয়। দ্বিতীয় ম্যাচে ভারত আবার সিরিজে ফিরিছে। নাগপুরে সিরিজের শেষ ম্যাচে স্বল্প রানের উইকেট খ্যাত নাগপুরের বিধোরভা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে জয়ের সুযোগ তাই দু’দলেরই সমান।

ভারতীয় স্পিনার যুজবেন্দ্রে চাহাল আর মাত্র চার উইকেট পেলে টি২০ ক্রিকেটে ভারতের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির খাতায় নাম ওঠাবেন। এ মুহূর্তে ৫২ উইকেট নিয়ে তালিকায় একে আছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। টি২০ ক্রিকেটে ৪০০ বা তার বেশি রান করা বাংলাদেশিদের মধ্যে সবচেয়ে ভালো স্ট্রাইক রেট লিটন দাসের। যে তালিকায় তিনিই প্রথম কোনো বাংলাদেশি; তার স্ট্রাইক রেট ১৩০ প্লাস।

ভারতীয়দের মধ্যে টি২০-তে সবচেয়ে কার্যকরী জুটি রোহিত শর্মা ও শিখর ধাওয়ানের। এখন পর্যন্ত ৫১ ইনিংসে এই জুটি থেকে স্কোরবোর্ডে যোগ হয়েছে ১৭৪০ রান। এক উইকেট পেলে ভারতের বিপক্ষে টি২০-তে সবচেয়ে বেশি উইকেটশিকারি হবেন আল-আমিন হোসেন। এখন পর্যন্ত ৭ উইকেট নিলেও বেশি ম্যাচ খেলায় পেসার রুবেল হোসেনের পরে আছেন আল-আমিন।

টি২০ ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত ৪৮টি ছক্কা হাঁকিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। রোববার নাগপুরে সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে যদি দুটি ছক্কা মারতে পারেন তাহলে ছক্কার হাফ সেঞ্চুরি হবে টাইগার দলনেতার। ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে সবচেয়ে বেশি ছক্কার মালিক ক্রিস গেইল। তার ঝুলিতে আছে ৫৩৪টি ছক্কা। দুইয়ে থাকা শহিদ আফ্রিদির মেরেছেন ৪৭৬ ছক্কা। আর তিনে থাকা রোহিতের নামের পাশে আছে ৩৯৮টি ছক্কা। আর দুটি ছক্কা মারলে ৪০০ ছক্কার মাইলফলক স্পর্শ করবেন তিনি।

উপরে