সোমবার, ২০ জানুয়ারি, ২০২০ | ৬ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

বাঘের বেশে কুকুর নামালেন কৃষক!

প্রকাশের সময়: ৭:২৯ অপরাহ্ণ - শনিবার | নভেম্বর ৩০, ২০১৯

 

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি

হনুমানের উৎপাতে দীর্ঘদিন ধরে নষ্ট হচ্ছে ক্ষেতের ফসল। অতিষ্ট হয়ে শেষে ‘বাঘ’ এর সাহায্য নিতে হল এক কৃষককে। আর তাতে কাজও হল দিব্যি। নিশ্চয়ই ভাবছেন, হনুমান তাড়াতে বাঘ কোথা থেকে পেলেন তিনি? এখানেই আসল ঘটনা।

ভারতের কর্নাটকের তীর্থহালি তালুকের নালুরু গ্রামের বাসিন্দা শ্রীকান্ত গৌড়া। হনুমানদের ফসল খেয়ে যাওয়া আটকাতে কী করা যায় ভাবতে ভাবতে মাথায় আসে বাঘের কথা। তবে আসল বাঘ আর পাবেন কোথায়, তাই নকল বাঘের ব্যবস্থা করেন।
প্রথমে একটি বাঘ-পুতুল ব্যবহার করেন। ক্ষেতের কাছে সেটিকে একটি উঁচু জায়গায় দাঁড় করিয়ে দেন শ্রীকান্ত। দেখেন এতে ভালই কাজ হচ্ছে। জমির সামনে ‘বাঘ’ দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে ফসলের দিকে ঘেঁসার সাহস পাচ্ছিল না হনুমানগুলো। এই কৌশল দিন দু’য়েক পর অন্য একটি জমিতেও ব্যবহার করেন। সেখানেও একই ফল হয়।

‘বাঘ’ ব্যবহারের কৌশল দু’বার কাজে দিলেও, বেশি দিন যে এটা চলতে পারে না, সেটাও বেশ জানতেন শ্রীকান্ত। তাই এবার তিনি কৌশলে কিছুটা পরিবর্তন আনেন। এবার একটি কুকুরকে বাঘের মতো ডোরাকাটা রং করেন। কুকুরটির গায়ে কলপের কালো রং মাখিয়ে দেন। দূর থেকে তার ডোরাকাটা দাগ দেখলে মনে হবে, সত্যিই যেন একটি বাঘ দাঁড়িয়ে রয়েছে।

শ্রীকান্তের এই কুকুরকে বাঘ সাজানোর কৌশল ভালোই কাজে দেয়। বাঘ সেজে কুকুরটি ক্ষেতের চারদিকে ঘুরে বেড়ায় আর তার ভয়ে হনুমান ফসলের ধারেকাছেও ঘেঁষার সাহস করে না। সূত্র: আনন্দবাজার

উপরে