শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০২০ | ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

নতুন বইয়ের গন্ধ শুঁকে শিক্ষার্থীরা শুরু করবে নতুন বছর

প্রকাশের সময়: ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ - সোমবার | ডিসেম্বর ৯, ২০১৯

currentnews

নতুন বইয়ের গন্ধ শুঁকে শিক্ষার্থীরা শুরু করবে নতুন বছর। ইতোমধ্যে সব উপজেলায় পৌঁছে গেছে শিক্ষার্থীদের নতুন পাঠ্যপুস্তক।

উপজেলায় পৌঁছালেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে এখনো পৌঁছায়নি নতুন বই। তবে শিক্ষা অফিসারের কার্যালয় থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বই পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। ফলে নতুন বছর শুরু হতে না হতেই নতুন বইয়ের গন্ধে ভরে উঠবে বিদ্যালয়ের প্রাঙ্গন। অপেক্ষা এখন নতুন বইয়ের।

এনসিটিবি সূত্রে জানা গেছে, নতুন বছরে দেশের ৪ কোটি ২৭ লাখ ৫২ হাজার ১৯৮ শিক্ষার্থীর মধ্যে বিতরণ করা হবে ৩৫ কোটি ৩৯ লাখ ১৪ হাজার ১৯৭টি বই। এর মধ্যে প্রাক-প্রাথমিকের প্রায় ৩৩ লাখ শিক্ষার্থীকে দেয়া হবে ৬৬ লাখ ৭৫ হাজার ২৭৬টি বই। প্রাথমিকের ২ কোটি ৪ লাখ ৪১ হাজার ৫৯৫ শিক্ষার্থীকে দেয়া হবে ৯ কোটি ৮৫ লাখ ৫ হাজার ৪৮০টি বই। এছাড়া ২ কোটি ৩২ লাখ ৪৩ হাজার ৩৫টি নতুন বই মাদ্রাসার ইবতেদায়ীর প্রায় ৩৩ লাখ শিক্ষার্থীর মাঝে বিতরণ করা হবে।

এনসিটিবি সূত্রে আরও জানা গেছে, মাধ্যমিকের বাংলা ভার্সনের প্রায় পৌনে ১ কোটি শিক্ষার্থীকে দেয়া হবে ১৮ কোটি এক লাখ ৮৮ হাজার ৬৩৯টি এবং ১২ লাখ ৮৬ হাজার ৮৯২টি বই দেয়া হবে ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীদের। চাকমা, মারমা, ত্রিপুরা, সাদরি এবং গারো ভাষাভাষী ৯৭ হাজার ৫৯৪ জন শিক্ষার্থীকে ২ লাখ ৩০ হাজার ১৩০টি বই দেয়া হবে।

এ বিষয়ে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, নতুন শ্রেণিতে নতুন বই পাওয়ার আনন্দই অন্যরকম। এর মধ্যে এক ধরনের সার্বজনীনতাও রয়েছে। কেননা দরিদ্র পরিবারের সন্তানদের অনেকেরই নতুন বই কেনার সামর্থ্য থাকে না। সেই বিষয়টি মাথায় রেখে সরকার বিনামূল্যে নতুন বই বিতরণ করছে। প্রায় ৩৬ কোটি পাঠ্যপুস্তক মুদ্রণ করা এবং একই সময়ে এক কোটি ২৫ লাখেরও বেশি প্রতিষ্ঠানে পাঠানো আমাদের পক্ষে সবসময়ই একটি কঠিন কাজ।

বছরের প্রথমদিন একযোগে দেশের সব স্কুলে বই উৎসব হবে জানিয়ে অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ডিসেম্বরের ২৯-৩১ তারিখের যেকোন দিন আনুষ্ঠানিকভাবে বই উৎসবের উদ্বোধন করবেন। বই উৎসবকে সামনে রেখে ইতোমধ্যেই দেশের প্রতিটি উপজেলায় বই পাঠানোর কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এবছর পৌনে ৪ কোটির বেশি শিক্ষার্থীর মাঝে প্রায় ৩৬ কোটি বই বিতরণ করা হবে।

বছরের প্রথমদিন এতো বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীর মাঝে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের মাধ্যমে বাংলাদেশ বিশ্বে এক বিরল নজির স্থাপন করেছে বলেও জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, গত দশ বছর ধরে প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাধ্যমিক, ইবতেদায়ী এবং দাখিলের পাঠ্যপুস্তক বিনামূল্যে একযোগে বিতরণ করে আসছে সরকার। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার হার কমছে বলে জানান সংশ্লিষ্টরা।

 

 

উপরে