সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ | ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

আবর্জনার সঙ্গে ফেলে দিলেন ১৪ লাখ টাকা

প্রকাশের সময়: ৪:৪৭ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | জানুয়ারি ২, ২০২০

Currentnews

আবর্জনা ফেলতে কারও ভাল লাগে না। তাই কোনও রকমে সেটি যথাস্থানে পৌঁছে দিতে পারলেই যেন শান্তি। কিন্তু এরপর থেকে আপনিও সাবধান থাকুন, না হলে আবর্জনার সঙ্গে চলে যেতে পারে ধনসম্পদও।

ইংল্যান্ডের বার্নহ্যাম সৈকত এলাকায় এক দম্পতি তাদের মৃত আত্মীয়র বাড়িতে পরিশকার-পরিচ্ছন্নতার কাজ করছিলেন। সেখানে তারা কিছু পুরনো বাক্স পান। কাজের কিছু নেই ভেবে সেগুলি রিসাইকেল সেন্টারে দিয়ে চলে আসেন।

রিসাইকেল সেন্টারের কর্মী সেগুলি মেশিনে তোলার আগে খুলে দেখেন। দেখতে পান তার মধ্যে রয়েছে ১৫ হাজার ইউরো। চাইলে হয়তো তিনি সেগুলি পকেটস্থ করতে পারতেন। কিন্তু তিনি তা না করে সেগুলি গচ্ছিত রেখে স্থানীয় অ্যাভন অ্যান্ড সামারসেট থানায় খবর দেন।

পুলিশকর্মীরা সেখানে গিয়ে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখেন। যে গা়ড়িতে করে বাক্সগুলির রিসাইকেল সেন্টারে পৌঁছে দেওয়া হয়েছিল তার নম্বর প্লেট দেখে ওই দম্পতির সঙ্গে যোগাযোগ করে পুলিশ। তাদের জানানো হয় বিষয়টি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই দম্পতি জানিয়েছেন, যে বাড়ি থেকে তারা বাক্সগুলি পেয়েছিলেন, তার মালিক প্রায়ই এমন উল্টোপাল্টা জায়গায় টাকা পয়সা লুকিয়ে রাখতেন। এই পুরনো বাতিল বাক্সগুলিতে জিনিসপত্রের নীচে লুকিয়ে রেখেছিলেন এই বড় পরিমাণের অর্থ। এমনকি তারা জানতেও না এই আত্মীয়ের কাছে এত টাকা ছিল।

পুলিশ প্রাথমিক তদন্ত করার পর ওই টাকা দম্পতির হাতে তুলে দেয়। সেই সঙ্গে রিসাইকেল সেন্টারের কর্মীরও প্রশংসা করেছেন সততার জন্য। আর জনগণকে সচেতন করেছেন, এমন আবর্জনা, পুরনো জিনিস ফেলার আগে একবার অন্তত দেখে নেওয়া, দামি কিছু রয়ে গেল কিনা।

উপরে