বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

শুক্রবার টুঙ্গিপাড়া যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশের সময়: ৭:১৫ অপরাহ্ণ - বুধবার | জানুয়ারি ২২, ২০২০

ফাইল ছবি

currentnews

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নব-নির্বাচিত কমিটির সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানাতে আগামী শুক্রবার টুঙ্গিপাড়া আসছেন। এদিন সকালে নেতৃবৃন্দ বঙ্গবন্ধুর সমাধি সৌধের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পন করবেন। পরে তারা ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেবেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল অফিসার-০১ এস এম খুরশিদ-উল-আলম স্বাক্ষরিত জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো এক ফ্যাক্স বার্তায় জানানো হয়, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে রওনা হবেন। সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে টুঙ্গিপাড়া পৌঁছাবেন তিনি। সকাল ১১টায় জাতির পিতার সমাধি সৌধে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাবেন। এরপর সশস্ত্র বাহিনী গার্ড অব অনার প্রদান করবে। পরে মোনাজাতে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী। বেলা ২টা ২০মিনিটে তিনি ঢাকার উদ্দেশে টুঙ্গিপাড়া ত্যাগ করবেন।

বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোর পর টুঙ্গিপাড়ায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে বলে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ আবুল বশার খায়ের জানিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে টুঙ্গিপাড়ায় বরণ করে নিতে আমরা প্রস্তুত। এ ব্যাপারে আমারা দলীয় কার্যালয়ে মিটিং করেছি। সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আগামী ২৪ জানুয়ারি আমরা প্রধানমন্ত্রীসহ আওয়ামী লীগের নব-নির্বাচিত কমিটির সদস্যদের উষ্ণ অভিনন্দন জানাবো।

প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নব-নির্বাচিত কমিটির সদস্যদের টুঙ্গিপাড়ায় আগমন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সমাধি সৌধ কমপ্লেক্স এলাকা ধোয়া-মোছাসহ সৌন্দর্য বর্ধনের কাজ করা হয়েছে। গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর থেকে টুঙ্গিপাড়া সড়কে নির্মাণ করা হয়েছে বেশকিছু তোরণ। বিভিন্ন স্থানে টানানো হয়েছে ব্যানার-ফেস্টুন। বর্নিল পতাকা দিয়ে সাজানো হয়েছে রাস্তাঘাট। আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত কমিটিকে বরণ করে নিতে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা সৃষ্টি হয়েছে।

গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপার মুহাম্মদ সাইদুর রহমান জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত নেতাদের টুঙ্গিপাড়া আগমন উপলক্ষে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। জেলার সর্বত্র তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে।

উপরে