শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০ | ৭ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

এক গানে বাংলাসহ ১৪ ভাষা, গিনেস বুকে ভারতীয় কিশোর

প্রকাশের সময়: ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ - মঙ্গলবার | সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

currentnews

সাত মিনিটের একটা গান। তাতে বাংলা, হিন্দি এবং ইংরেজিসহ ১৪টি ভাষা। যার প্রস্তুতি নিতে সময় লেগেছে ৭ হাজার ৫০০ ঘণ্টা! ‘৭৫০০’ শিরোনামের এমন একটি গান তৈরি করে গিনেস বুকে ঠাঁই পেয়েছেন চেন্নাইয়ের ১৬ বছর বয়সী অঙ্কিত গুপ্ত।

দ্বাদশ শ্রেণিতে পড়া অঙ্কিতকে স্থানীয় গণমাধ্যমে হিপ-হপ শিল্পী হিসেবে পরিচয় করানো হয়েছে। কিন্তু যে উদ্দেশ্য নিয়ে গানটি তৈরি করেছেন তাতে বোঝা যায় নিজেকে তিনি শুধু ‘শিল্পী’ হিসেবেই পরিচয় দিতে ভালোবাসবেন। নিজের ইউটিউব চ্যানেল ‘৭৫০০’ গানের থিম সম্পর্কে ধারণা দিতে গিয়ে লিখেছেন, ‘মিউজিকের কোনো ভাষা নেই।’
গিনেসের ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে, গত ৯ সেপ্টেম্বর অঙ্কিতকে ‘মোস্ট ল্যাঙ্গুয়েজেস ফিচারড অন অ্য সিডি সিঙ্গেল’ অর্থাৎ এক গানে সবচেয়ে বেশি ভাষা ব্যবহারকারীর স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। ১২ জন শিল্পীর গাওয়া এই গানের প্রোডিউসার এবং মেকার অঙ্কিত।

‘প্রতিটি গান কাগজ এবং কলম দিয়ে শুরু হয়। আমারটাও তাই,’ পেছনের কথা জানাতে গিয়ে অঙ্কিত চেন্নাইয়ের একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘২০১৯ সালের নভেম্বরে মজা করতে করতে একটি গানের ভাবনা আমার মাথায় আসে। এরপর এল লকডাউন।’

‘করোনার দিনগুলোতে গানে আরও মন দেই। তখন মনে হল কয়েকটি ভাষা যুক্ত করা উচিত। আমি এআর রহমান স্যারের দর্শনের বড় ভক্ত। আমি বিশ্বাস করি, গানের ক্ষেত্রে ভাষাগত কোনো বাধা থাকতে পারে না।’

অঙ্কিত জানিয়েছেন, গানটি নিয়ে কাজ শুরু করার দিন থেকে এডিট পর্যন্ত তার ৭৫০০ ঘণ্টা বা ৩১৩ দিন সময় লেগেছে। গিনেস বুকের পাশাপাশি গানটি ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডস এবং এশিয়া বুক অব রেকর্ডস থেকে সর্বাধিক ভাষার গানের স্বীকৃতি পেয়েছে।

বাংলার পাশাপাশি গানটিতে তামিল, তেলেগু, কন্নড়, মালায়ালাম, হিন্দি, ইংরেজি, আরবি, জার্মান, ইতালিয়ান, নেপালি, জ্যামাইকান, সুইডিশ এবং স্প্যানিশ ভাষা যুক্ত করা হয়েছে। সূত্র : টাইসম অব ইন্ডিয়া।

উপরে