শুক্রবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২০ | ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

মেসি খেলা ছাড়লে টিভি ছুড়ে ফেলবেন তিনি

প্রকাশের সময়: ৪:১২ অপরাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | অক্টোবর ২৯, ২০২০

currentnews

বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসি ‘ফুটবলের হ্যারি পটার’, যার জাদুতে মুগ্ধ সবাই। মঙ্গলবার তুরিনে সাবেক ক্লাব জুভেন্টাসকে বার্সার কাছে হারতে দেখার পর আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে প্রশংসায় ভাসালেন ক্রিস্টিয়ান ভিয়েরি।

মেসির অ্যাসিস্টে উসমান দেম্বেলের শট প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে জালে জড়ায়। এরপর শেষ দিকে পেনাল্টি থেকে গোল করেন বার্সা অধিনায়ক। ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ী প্রতিপক্ষের অর্ধে ৬৫ পাস দিয়েছেন এবং ম্যাচের মোড় বদলে দেওয়ার মতো পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ পাসও আসে তা পা থেকে।

তুরিনে মেসির এমন পারফরম্যান্স দেখার পর তাকে প্রশংসায় না ভাসিয়ে পারলেন না জুভেন্টাসের জার্সিতে ১৯৯৭ সালের সিরি ‘আ’ ট্রফি জয়ী সাবেক ফরোয়ার্ড। ইতালির জার্সিতে ৪৯ ম্যাচ খেলা ভিয়েরি বলেছেন, ‘অসাধারণ বার্সেলোনা, প্রতিপক্ষকে পাত্তাই দেয়নি। তারা সহজে ছয় থেকে সাতটি গোল করতে পারতো। চমৎকার খেলেছে তারা।’
মেসির খেলা কতটা উপভোগ করেন তা প্রকাশ করলেন এই ইতালিয়ান, ‘মেসি একজন জাদুকর। ফুটবলের হ্যারি পটার সে। যখন সে খেলা বন্ধ করবে, তখন আমি টিভি বাইরে ছুড়ে ফেলবো। আমি আর টিভিতে কাজ করবো না। তখন নেটফ্লিক্স দেখবো, এটাই। কারণ যখন সে আর খেলবে না, তখন আসলে আর কিছুই দেখার নেই।’

২০০৩-০৪ সালের পর প্রথমবার ঘরের মাঠে চ্যাম্পিয়নস লিগে একটি শটও লক্ষ্যে নিতে পারেনি জুভেন্টাস। ফরোয়ার্ড আলভারো মোরাতার তিনটি গোল বাতিল হয় অফসাইডে। সাবেক ক্লাবের এই হতাশাজনক পারফরম্যান্স ছাড়িয়ে বার্সায় মুগ্ধ ভিয়েরি, ‘এটা ছিল একেবারে অন্যরকম খেলা। আমি জানি না তারা কিভাবে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে হেরে গেলো। কিন্তু আপনারা যদি তাদের দেখেন (জুভেন্টাসের বিপক্ষে) তাহলে হয়তো বলবেন এ বছর আর কারও কাছে তারা হারবে না।’

 

উপরে