শনিবার, ০৬ মার্চ, ২০২১ | ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

গর্ভবতী মহিলারা করোনায় সুরক্ষিত থাকতে এই নিয়মগুলি মেনে চলা উচিত

প্রকাশের সময়: ৯:৫৩ অপরাহ্ণ - শনিবার | জানুয়ারি ২৩, ২০২১

currentnews

করোনা আবহে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে পরিস্থিতি। শুরু হয়েছে ট্রেন, মেট্রো পরিষেবা, খুলে গিয়েছে অফিস, সিনেমা হল, রেস্টুরেন্ট। করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা আগের থেকে ধীরে ধীরে কমতে শুরু করেছে। তবে স্বস্তিতে থাকা যাবেনা এখনই। কারণ এখনও করোনার কোনও ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়নি, তাই সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে প্রতি মুহূর্তে। করোনা নিয়ে সবথেকে বেশি সতর্ক থাকতে হবে হবু মায়েদের, কারণ তাদের শরীরে বেড়ে উঠছে আরও একটি প্রাণ। হবু মায়েরা অসতর্ক হলে তাদের সঙ্গে সঙ্গে গর্ভস্থ শিশুও বিপদে পড়তে পারে। তাই আজকের এই আর্টিকেলে হবু মায়েদের জন্য রইল কিছু সতর্কতা। ঈড়ৎড়হধারৎঁং অহফ চৎবমহধহপু : চৎবপধঁঃরড়হং ফঁৎরহম ঢ়ৎবমহধহপু ধসরফ পড়ৎড়হধ ঢ়ধহফবসরপ ১) খুব প্রয়োজন ছাড়া গর্ভবতীদের বাইরে না বেরোনোর পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। বেরোলে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। সঙ্গে রাখতে হবে স্যানিটাইজার। ২) চিকিৎসকের কাছে গেলে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা খুব জরুরি। কম করে ২ ফুট দূরত্ব মানতেই হবে, ভালো হয় ৬ ফুট ডিসটেন্স মেনে চললে। বাইরে বেরিয়ে চোখ, নাকে হাত দেওয়া যাবে না। ৩) বাইরে থেকে এসে আগে স্নান করুন। গরমজলে স্নান করলে খুব ভালো। যে জামাকাপড় পরে গিয়েছিলেন সেগুলো সঙ্গে সঙ্গে কেচে ফেলার চেষ্টা করুন। মাস্ক, গ্লাভস ফেলার আগে অবশ্যই ডিসইনফেক্ট করুন। ঐসব জিনিসে ভাইরাস থাকতে পারে, তাই ডিসইনফেক্ট না করলে ভাইরাস সহজে ঢুকে পড়বে আপনার বাড়িতে। ৪) বাইরে বেরোলে ঘড়ি, আংটি জাতীয় জিনিসপত্র না ব্যবহার করাই ভালো। কারণ এগুলো থেকে করোনা ছড়াতে পারে। যদি পরে বেরোন তাহলে বাড়ি ফিরে সব ডিসইনফেক্ট করুন। মোবাইল, ব্যাগ যেগুলো নিয়ে বেরিয়েছিলেন সেগুলোও ডিসইনফেক্ট করা দরকার। ভালো অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। কোভিড-১৯ : সদ্য মা হয়েছেন? সুস্থ থাকতে মেনে চলুন এই ডায়েট প্ল্যান ৫) প্রতিদিন এক্সারসাইজ করুন। এর ফলে আপনার শরীর যেমন ভালো থাকবে, তেমন মনও। ৬) গর্ভবস্থায় খাওয়াদাওয়ার দিকে নজর দেওয়া জরুরি। হবু মা যা খাবেন সেখান থেকেই পুষ্টি পাবে গর্ভস্থ শিশু। করোনা আবহে হবু মায়েদের ডায়েটের দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে। প্রোটিন, ফাইবার, ফলিক অ্যাসিডযুক্ত খাবার খেতে হবে। শাকসবজি, মাছ, মাংস, দুধ সব যেন থাকে খাদ্যতালিকায়। খাবারের সঙ্গে নিয়ম মেনে খেতে হবে চিকিৎসকের দেওয়া ওষুধও। ৭) খাওয়ার আগে হাত ধোওয়া অত্যন্ত জরুরি। এতে হাতে থাকা জীবাণু আপনার পেটে পৌঁছতে পারবে না। ৮) পরিবারের কারুর জ্বর, সর্দি, কাশি বা হাঁচি হলে তার থেকে দূরে থাকুন। আলাদা ঘরে থাকলে খুব ভালো। নাহলে বাড়ির মধ্যেই সবসময় মাস্ক ব্যবহার করুন। ঈড়ৎড়হধারৎঁং অহফ চৎবমহধহপু : চৎবপধঁঃরড়হং ফঁৎরহম ঢ়ৎবমহধহপু ধসরফ পড়ৎড়হধ ঢ়ধহফবসরপ ৯) গর্ভাবস্থার তিনটি পর্যায় আছে। প্রতি পর্যায়ে চিকিৎসক কিছু পরীক্ষা করাতে বলেন। চিকিৎসকের নির্দেশমতো সঠিক সময়ে পরীক্ষাগুলো করা দরকার। ১০) এইসময় অকারণ ভয়, আতঙ্ক হবু মায়েদের জন্য যেমন খারাপ তেমন গর্ভস্থ সন্তানের জন্যও ভাল নয়। গর্ভাবস্থায় হবু মায়ের মন ভালো থাকা দরকার। তাই গান শুনুন, গার্ডেনিং করুন। মন ভালো থাকে এমন কাজ করুন। এই সময় ভালো ভালো গল্পের বই পড়তে পারেন। খবরের কাগজ বা টিভিতে করোনা সংক্রান্ত খবর দেখলে এড়িয়ে চলুন, কারণ এতে আরও উদ্বেগ বাড়বে, বাজে চিন্তা ভিড় করবে মাথায়। বরং সিনেমা দেখুন। কাছের মানুষদের সঙ্গে কথা বলুন। আনন্দে থাকুন। নিয়মিত যোগাযোগ রাখুন আপনার চিকিৎসকের সঙ্গে। কোনও সমস্যা দেখা দিলে ভয় না পেয়ে আলোচনা করুন চিকিৎসকের সঙ্গে। করোনা আবহে গর্ভবতী মহিলারা মানসিকভাবে সুস্থ থাকতে যে নিয়মগুলি মেনে চলবেন দেখুন করোনা নিয়ে হবু মায়েদের জন্য স্বস্তির খবর শুনিয়েছে জড়ুধষ ঈড়ষষবমব ড়ভ ঙনংঃবঃৎরপরধহং ধহফ এুহধবপড়ষড়মরংঃং (জঈঙএ)। তারা জানিয়েছে, হবু মায়েরা করোনা আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ছেন এমন কোনও প্রমাণ এখনও পর্যন্ত নেই। তবে হবু মায়েরা মডারেট রিস্কের তালিকায় রয়েছেন। তাই তাদের সরকারি নির্দেশিকা মেনে চলা জরুরি। করোনা বিধি নিষেধ মানলেই মা ও তার সন্তান থাকবে সুস্থ ও সুরক্ষিত।

https://www.revenuecpmnetwork.com/hsbkfw8q51?key=6336343637613361393064313632333634613266336230363830336163386332

উপরে