শুক্রবার, ০৫ মার্চ, ২০২১ | ২০শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

কাল রাজধানীর ৫ হাসপাতালে ৫০০ জনকে করোনার টিকা দেয়া হবে

প্রকাশের সময়: ৮:৫২ অপরাহ্ণ - বুধবার | জানুয়ারি ২৭, ২০২১

currentnews

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ৫টি হাসপাতালে ৫০০ জনকে করোনার টিকা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বুধবার বিকেলে রাজধানীর কুর্মিটোলা জোনারেল হাসপাতালে প্রথম ২৬ জনকে টিকা দেয়ার সময় এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি বলেন, ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে সারা দেশে নিবন্ধিতদের করোনার টিকা দেয়া হবে। এ জন্য কাজ করবে ৪২ হাজার প্রশিক্ষিত কর্মী। পর্যায়ক্রমে দেশের সকল উপজেলা, জেলার সরকারি হাসপাতাল ও মেডিকেল কলেজে টিকা দেয়া হবে। কিছুদিন পর নীতিমালার মাধ্যমে সক্ষমতা অনুযায়ী বেসরকারি হাসপাতালগুলোতেও টিকা দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, টিকা নেয়ার পর প্রত্যেককে আধাঘন্টা পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। কারো কোনো পার্শপ্রতিক্রিয়া দেখা গেলে সাথে সাথে চিকিৎসা দেয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, জুন মাস পর্যন্ত সাড়ে ৫ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিনের আওতায় আনার লক্ষ্য।

এদিকে বুধবার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু ভেরোনিকা কস্তাকে টিকা দেয়ার মধ্য দিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার তৃতীয় দেশ হিসেবে বুধবার করোনা ভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হলো বাংলাদেশে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিকাল ৪টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিকাদান কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এদিন আরো ২৬ জনকে টিকা দেয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে ২৫ জনের মধ্যে প্রথম পাঁচ জনের ওপর টিকার প্রয়োগ প্রত্যক্ষ করেন। নার্স রুনু বেরোনিকার পর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আহমেদ লুৎফুল মোবেন, স্বাস্থ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহা পরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা, মতিঝিল বিভাগের ট্রাফিক পুলিশ সদস্য মো. দিদারুল ইসলাম এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এম ইমরান হামিদ টিকা গ্রহণ করেন।

প্রধানমন্ত্রীর ভার্চুয়াল উপস্থিতিতে টিকাগ্রহীতারা ‘জয় বাংলা’ স্লোগান দেন। এ সময় প্রধানমন্ত্রী তাদের সাথে কথাও বলেন।

টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধনের আগে প্রধানমন্ত্রী তার সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বলেন, টিকা দেশে আনার বিষয়টিকে সরকার সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখেছে। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে ৩ কোটি ৪০ লাখ ডোজ পাওয়ার ত্রিপক্ষীয় চুক্তি হয় দ্রুততার সাথে। টিকার জন্য অর্থমন্ত্রালয় স্বল্প সময়ে প্রয়োজনীয় অর্থ ছাড়ও দেয়।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে আশাবাদ ব্যক্ত করেন, টিকার মাধ্যমে করোনা প্রতিরোধে সক্ষম হবে দেশ। করোনা মোকাবিলায় যারা ফ্রন্টলাইনে কাজ করছেন তাদের ধন্যবাদও জানান তিনি।

https://www.revenuecpmnetwork.com/hsbkfw8q51?key=6336343637613361393064313632333634613266336230363830336163386332

উপরে