বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১ | ১৩ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

টানা ৩২ বছর যাবৎ ক্রশবিদ্ধ হচ্ছেন এরা

প্রকাশের সময়: ১০:৩০ অপরাহ্ণ - শনিবার | মার্চ ৩১, ২০১৮

কারেন্টনিউজ ডটকম ডটবিডি:

খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের কাছে ‘গুড ফ্রাইডে’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ দিন হিসেবে ধরা হয়। কেননা ওই দিন যিশুকে ক্রুশ বিদ্ধ করা হয়েছিল। দিনটিকে খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীরা ‘হোলি ফ্রাইডে’, ‘ব্ল্যাক ফ্রাইডে’ কিংবা ‘গ্রেট ফ্রাইডে’ হিসেবেও ডেকে থাকেন। সারা বিশ্বের খ্রিস্টানরা এই দিনটিতে চার্চে গিয়ে অথবা নিজেদের মতো ইশ্বরের কাছে প্রার্থনা করে কাটিয়ে দেন।

ফিলিপাইনের নাগরিক রুবেন এনাজে কিন্তু দিনটিকে পালন করেন অন্যভাবে। সব নিয়মনীতিকে ছাপিয়ে নিজেই এদিন হয়ে ওঠেন যিশু। রাজধানী ম্যানিলা থেকে মাত্র ৭৬ কিলোমিটার দূরে কুটুড নামক গ্রামের ৫৮ বছর বয়সী এনাজে ওইদিন নিজেকেই ক্রুশ বিদ্ধ করেন।

যিশুকে ভালোবেসে দীর্ঘ ৩২ বছর ধরে গুড ফ্রাইডের দিনে রুবেন এনাজে যিশুর মতো নিজেকে ক্রুশ বিদ্ধ করে চলেছেন। যিশুর মতোই নিজের দুই হাতে এবং পায়ে দু’ইঞ্চি দীর্ঘ পেরেক গাঁথেন। এরপর কাঠের ক্রুশের সঙ্গে নিজেকে ঝুলিয়ে দেন। যেমনটা করা হয়েছিল যিশুকে।

মাঠের মাঝখানে ক্রুশবিদ্ধ অবস্থান রুবেন এনাজে অবশ্য একা থাকেন না। প্রতিবছরই তার দু’পাশে থাকেন আরও দুই গ্রামবাসী। চলতি বছর এক নারীকেও এমন ক্রুশবিদ্ধ অবস্থায় দেখা যায়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দি সান শনিবার এক প্রতিবেদনে জানায়, গত ৭ বছর ধরে তিনিও এই কাজ করছেন।

ফিলিপাইনের প্রায় ৮০ ভাগ মানুষই ক্যাথলিক। তাদের কাছে বড়দিন যেমন খুশির, তেমনই গুড ফ্রাইডে অত্যন্ত দুঃখের একটি দিন। তাদের বিশ্বাস এই দিন জীবনের সব পাপ আর কলঙ্ক মুছে ফেলার সুযোগের দিন। এদিনের প্রার্থনা আর সাধনায় শরীর ও মনের সব পাপ মার্জনা হবে। শরীর হবে শুদ্ধ আর পূরণ হবে মনের সব বাসনা।

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন

https://www.revenuecpmnetwork.com/hsbkfw8q51?key=6336343637613361393064313632333634613266336230363830336163386332

উপরে