মঙ্গলবার, ১৮ মে, ২০২১ | ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Logo
Print

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার আবেদন শেষ হচ্ছে আজ

প্রকাশের সময়: ১১:৩২ পূর্বাহ্ণ - বৃহস্পতিবার | এপ্রিল ১৫, ২০২১

currentnews

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদনপত্র নেয়ার কার্যক্রম শেষ হচ্ছে আজ (বৃহস্পতিবার)। প্রাথমিক আবেদনকারীদের মধ্যে মেধার ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য শিক্ষার্থীদের ফল ২৩ এপ্রিল (শুক্রবার) মোবাইল ফোনে ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে জানানো হবে।

প্রাথমিকভাবে বাছাই করা শিক্ষার্থীরা মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে ৫০০ টাকা জমা দিয়ে ২৪ এপ্রিল থেকে ২০ মের মধ্যে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য চূড়ান্ত আবেদন করতে পারবেন।

আবেদনকারীরা ১ জুন থেকে ১০ জুনের মধ্যে প্রবেশপত্র ডাউনলোড করতে পারবেন এবং ১৯ জুন থেকে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে।

গত ১ এপ্রিল থেকে ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদন নেয়া শুরু হয়। তবে সর্বশেষ কত আবেদন পড়েছে তা জানা যাবে আজ বিকেলে। তবে গত রোববার বিকেল সাড়ে ৩টা পর্যন্ত প্রায় ৩ লাখ আবেদন এসেছে বলে জানা গেছে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, বিজ্ঞান শাখার ক্ষেত্রে ২০১৭, ২০১৮ সালে এসএসসি/সমমান ও ২০১৯, ২০২০ সালে এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০সহ সর্বমোট জিপিএ ৮.০০ থাকতে হবে।

মানবিক শাখার ক্ষেত্রে, ২০১৭, ২০১৮ সালে এসএসসি/সমমান ও ২০১৯, ২০২০ সালে এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০সহ সর্বমোট জিপিএ ৭.০০ থাকতে হবে।

বাণিজ্য শাখার ক্ষেত্রে,২০১৭, ২০১৮ সালেএসএসসি/সমমান ও ২০১৯, ২০২০ সালে এইচএসসি/সমমান উভয় পরীক্ষায় (৪র্থ বিষয়সহ) ন্যূনতম জিপিএ ৩.৫০সহ সর্বমোট জিপিএ ৭.৫০ থাকতে হবে।

প্রাথমিকভাবে আবেদনকৃত শিক্ষার্থীদের এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি /সমমান পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে( সর্বোচ্চ ৬ বাছাইয়ের মানদণ্ড অনুসারে) ইউনিট ভিত্তিক চূড়ান্ত আবেদনের জন্য শিক্ষার্থী নির্বাচিত হবে। প্রতিটি ইউনিটে নির্দিষ্ট সংখ্যক শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। নির্ধারিত সময়ে চূড়ান্ত আবেদন সম্পন্ন করতে হবে। অন্যথায় পরবর্তী তালিকা হতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক শিক্ষার্থীকে চূড়ান্ত আবেদনের সুযোগ দেয়া হবে। প্রতিটি ইউনিটে আবেদন ফি ৬০০ টাকা মাত্র মোবাইল ব্যাংকিং (বিকাশ, রকেট, নগদ, টেলিটক)-এর মাধ্যমে প্রদান করতে হবে।

চূড়ান্ত আবেদনের সময় শিক্ষার্থীদের ২৮টি পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে নূন্যতম ৫টি কেন্দ্র পছন্দের তালিকায় রাখতে হবে। এসএসসি/সমমান ও এইচএসসি/সমমান কোর্সের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবস্থান,এসএসসি ও এইচএসসি/সমমান পরীক্ষার প্রাপ্ত নম্বর,পাসের বছরসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়াদি বিবেচনা পূর্বক প্রতিটি শিক্ষার্থীদের জন্য একটি কেন্দ্র নির্ধারণী স্কোর (সর্বোচ্চ ১০০) প্রস্তুত করা হবে।প্রাপ্ত স্কোর ও কেন্দ্রের পছন্দক্রমের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্র নির্ধারণ করা হবে।নির্ধারিত পরীক্ষা কেন্দ্র পরিবর্তনের কোনো সুযোগ নেই।

প্রসঙ্গত, গত ১ এপ্রিল থেকে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার প্রাথমিক আবেদন শুরু হয়। পরীক্ষা শুরু হবে ১৯ জুন থেকে। গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষার বিস্তারিত তথ্যাদি ভর্তি সংশ্লিষ্ট ওয়েব সাইট (www.gstadmission.org এবং www.gstadmission.ac.bd) এ পাওয়া যাবে।

আর্কাইভ

বিজ্ঞাপন

https://www.revenuecpmnetwork.com/hsbkfw8q51?key=6336343637613361393064313632333634613266336230363830336163386332

উপরে